Feature Label Area

Friday

Tagged under:

Story of Freedom by Raych Hatashe


It was about 44 years of Christ Era, New State in America, now a days it's State of New York. 

It's called simple New, because, just about 10 years ago America Mainland people discovered the island as a very potential & resourceful place. So immediately few people migrated in the New State Island. Currently which name is New York State. After America Mainland many people shifted here permanently, very soon they found this island as very living friendly. It was full of forest & bordered by sea. So they have no problem to get available foods & utilities for livelihood. People build few Communities. They established a regular sea transport service with the Mainland America's different places of presently United States, Canada, Mexico, Bahamas, Cuba, Argentina, Brazil and all others possible places. The every month several ships were go to those places with full of different animals, fish, birds, perfumes & talc powder, zinc, iron and different raw materials of many substances. Within few years New State became very important hub source of livelihood resource to the total Mainland America. Later historians estimated that approximately 10% livelihood utilities of total America Continentals were supplied from the New York State. So how rich & resourceful we're this new state in that times. 

However, a happy couple in new state, Mr. John Smith and Mrs. Rose House. They were owned to a sea port, a forest along few mountains & lakes in the forest. Besides, they also had a business of auberges, where incoming & outgoing people of new state stayed night. Many merchant ship were used they sea port too. They were young couple and very happy from all sides. 

In the years of 44 Christ Era, the 2nd month of the Aegaeon Year in America, Mrs. Rose House gave birth a wonderful baby, a girl. They named her name, Dom White because she was very beautiful & white color skin. 

Dom was growing day by days, year after year has been passed. She was learning how handle their family business, how to cultivate land & maintain forest and others properties. She pass excellent days with friends & family. Everyday she meet new new people whoever comes from Mainland America's many sides. 

Miss Dom White, most of everybody once visited their auberges, know very well about her. Dom was a pretty girl & very friendly. Shortly everybody call her Dom. She loves to listen about American folk stories that Mainland people who rent their auberges, tell her new & interesting stories, stories of Greek Deities as such Zeus, Hera, Poseidon, Apollo, etc., that how they lead the whole world. Very much she like to listen story of Zeus. She compared Zeus & favorite others to the American Deities as such God, Truth, Selfie, Rika, etc. She curious to learn Greek deity Zeus, also she know nothing about God but always she try to learn the divine deity and folklore hero. 

Dom White growth enough physically & mentally. She became 14 years old now. Very easily she is visible now to everyone, she changed and may understood her maturity & growth. 

Suddenly, oneday, a large merchant ship were arrived in a sea port of the new state island. It was Manhattan sea port. An unknown ship, unknown people, new style their dress and different food habit. Everybody of the new island surprised. Their language nobody understand. 

Who are the strangers? From where they came here? Definitely they are not from America Continentals. 

But they were quite peaceful & gentle and didn't disturb to the new state people. So nobody found them disgusting, even all are liked the strangers and became curious. 

"Our deity God sent the new strangers in the new state". Everybody told each others. 

Oneday, Dom White visited the strangers' camp. There are about 50 numbers of people in the group. She identified. There also few women came with them. 

About a month passed away, by this times they learned little the American language. 

Dom talked with a young in the strangers group. 
"My name is Neighbor York. What is your name lady?" The man asked to the Dom.
"I'm Dom. Miss Dom White." She replied. "You collect firewoods from this forest, it's our forest. And we also have a sea port, there few ship always can be found that they arrived or preparing to leave." 
"Nice to meet you Miss Dom White. I believed you are a good girl and we'll need your help." Neighbor told her. 
"My parents can help you. So when you need any help, ask my parents. You can do some business here." Dom suggested to Neighbor. 
"Off course Dom. We are new here and we can do physical work, so we expense our labors to live here." Neighbor said. 
"But how many days will stay in our island?" Dom asked. 
"I don't know Dom." He suppressed. "May be rest of my life or not." 
Lady Dom asked with tone of yawn, "But at least told me, from where you came here and why?"
"It's far away from here. Our land's name is Israel. Our King told us to go around the whole world and deliver his message and connecting relationship with rest of the world." Neighbor told her swiftly. "So our group arrived here." 
"Ok. Thank you Mr. Neighbor. I guessed, you will stay long here. So hope to meet you again." Lady Dom White leaved the base camp of the strangers group. 

By this way, more two years passed. Now Lady Dom is 16 years old girl. She loved to the Israelis man Neighbor York. 

In this two years chapter of Lady Dom's life, she heard about another Deity's namely Jehovah. She heard about Jesus Christ they also called Lord, and Son of God. Lady Dom, imagine, how it could be wonderful, is she were daughter of God - their deity. She also liked Jesus, as she liked Zeus. 

Lady Dom imagine many things, everyday, every moments. She imagine to travel Mainland America with her beloved Neighbor. Dom is 16 and Neighbor is about 33 years old. 

Often together they walk on the sea beach, sing song, and fishing together. Neighbor York love to Dom White. What kind of love it is? Exactly they don't know. But the such days are appeared their life they can't pass every single day without each of the company. There a local tradition developed in new island that every young men & girls get marry during one of their birthday or birth month. So they planned to get marry in 2nd month of the coming truth year, when Dom White will be 17 and Neighbor York will be 34 years old. 

They planned how they will get marry and to whom special they will invite in their wedding ceremony. 

"My father & uncle and my brother & cousin all are in Mainland right now for trade purpose. They purchased a ship in last year to trade with Mainland. Soon they will back and again go after a year. So after they arrive, immediately we inform them for their consent on our marriage." Dom said to Neighbor. 
"Yes. I am also thinking to inform my parents." Answered by Neighbor. 

After a month, Dom's father, uncle, brother & cousin returned from America Mainland. They had an excellent business. She created a flowers garden in the yard. Spring season arrived too. Lots of flowers are blossomed in the Dom's garden. Few birds are playing everyday on her garden ground, yard's trees, they sing, rise their voice in morning to evening. The sea wind play over her hairs. Dom like to morning walk with naked feet's on the grass. New State Island's free fresh air - she like very much, blowing air on her body, she feel it's the lovely touch of her boyfriend Neighbor York. She started to believe the American deity the God, for years after years she loved, she feel God since her childhood, God gave her Neighbor as her life partner, best gift of her life she ever found. "Oh God! How great & wonderful you are!" She give thanks to the Deity the Creator of America and the world. 

She think in night on bed, after their marry, next year Dom & Neighbor will go together to the Mainland with her father. She heard, Mainland was their first land. So she feel America Mainland in her heart. Yes she must go. She decided. 

Next morning! 
If only Dom can predict that what is going to happen. 
"Father & Mother." She take attention of her parents. 
"Yes my girl." Mother replied. "Tell us what you want to do. You know your father did huge profits in this year's business with Mainland." 
"I want to marry, mother." Dom White said. 
"We are also thinking of you, daughter." Father said. 
"But I want to marry only Neighbor, I love him." Dom said with shy. 
"You know, Dom, it's not possible. Who they are we don't know. So I can't handover you to an unknown man." Father became angry. 
"Now they are not unknown, father. They have been living for about 4 years. Now they are cityzen of the new state." Dom continuesly argue with her parents. 

Next day, it's became difficult to go out of her parents' eyes. Dom can't meet with Neighbor. But Neighbor is waiting on the sea beach to meet with her. Morning to evening. But she not came. 
"Oh! What happened to my Dom." He said himself. He worried and prayed he learned from him Israelis group. 
A full week everyday Neighbor visited sea beach, river banks, forest areas, lake & mountain sides, on one hope, if he can see Dom. 
Alash! Dom not came nor he heard anything about her. He gathered news of Dom & her family. Neighbor informed, Dom's parents block her permission to go outside. 

It was very difficult to each other to Pass a week without their meet. But now no option. Dom's life being difficult and Neighbor's too. 

Neighbor York wrote something on a piece of stone; "Free Dom". And placed the stone piece infront of Dom White's House. Neighbor took several stone piece and many wooden piece, he wrote the same thing;  "Free Dom", that's mean release the Dom, so she can move freely without bound & hesitation. 

Free Dom! Though Neighbor put a remarkable philosophy but Dom's parents make not sense on it. Indeed, the news spared quickly around the new state island that a alien York loved a New State girl but their parents are not agree on their marriage. So the York delivered the message in the whole New State Island. 

Within another week, pressure rised on the foreigners communities and to the John Smith & Rose House family too. 

Oneday very morning, Dom's parents take her in a ship heading to the Mainland America. Together they arrived in the ship and it's leaved New State Island and York, for Dom - it was forever. Dom leaved New State & York forever. But she took a piece of stone where Neighbor wrote "Free Dom". Dom carried the stone with her - her name someone wrote on the stone. She surprised and she miss to Neighbor, Dom crying. Her tears dropping to the stone's message "Free Dom". 

It is an ancient story of America where two young Lady Dom White and Gentleman Neighbor York life & love history classically developed. After that times to till now the Freedom is one of most said & used word in the world. If someone go America, most of everywhere, they will see the "Freedom" labeling; in the airport, bus & train station, office, school, college, university, signboard, billboard and most of everywhere "freedom" labeling will be found. This freedom is so desired and everybody want freedom and America is a nation of freedom Freedom of Expression, Freedom of Rights and the Boundless Freedom. 
----
Dr. Raych Hatashe 
Tagged under:

Big Deal: Microsoft's fired MSN appeared as MSNBC Cable Network and what is behind the Bing


Some people said that Microsoft's search engine MSN get down in the line of competition with Google then Microsoft tried to sustain the fired msn by creating Bing. Definitely Google did & doing great job through their all remarkable services & great products. But do you have any idea what Microsoft done with MSN? Many people may know and many are not but my eyes pointed over the MSNBC after Donald Trump's inauguration of 45th presidency, when he invited most chosen few news/media included MSNBC (www.msnbc.msn.com OR www.msnbc.com/msn). 

Now let you show the Microsoft's MSN Products & Services; 
✓ http://www.MSNBC.com 
✓ http://www.NBCNews.com 
✓ http://www.CNBC.com 
✓ http://www.NBC.com 
✓ http://www.NBCSports.com 
✓ Manyothers in different domains in partnership with news & cable TV network companies. 

It is attractive & significant and not so small you may thinking but as former FBI Director James Comey said, "It is big deal".

According to msn, MSNBC Cable Network is one of top 100 in the world. But it may one of top 10 in world right now in the category of future generation presented now a days. 

Now, the intention of shared this MSN.com information is that Do you have any idea for what's are doing Microsoft behind the Bing.com? 

Thursday

Tagged under:

Immediately & emergency investigation on Obama & his administration INSTEAD Obstruction of Justice for Trump

✓ There need immediately & emergency investigation against Obama & his administration has ever done in the US history. 
✓ There lots of beneficiaries of Obama Administration are remaining in the Government & Private sector of United States, for they are trying to put just newly elected President Donald Trump under investigation instead of Obama's investigation. 
✓ But if there require any investigation, it's very urgent & mandatory to investigate on last President Barack Obama and his administration that whatever they done for why his beneficiaries are trying to hide those over keeping busy the entire US government on Trump's investigation? 
Hasanuzzaman Talukdar (HATASHE) 
International Consultant 
National Center for State Courts (NCSC) 

(NCSC Provides Trusted Leadership, Proven Solutions, Partnering for Justice, Better Courts) 
Tagged under:

Unappointed Spokesman Briefing: We need a stable United States BECAUSE


✓ We need a stable United States of America.
✓ Our today's source of Science, Technology, utilities of life & livelihood, and knowledge, 80% are sourced from America.
✓ America really hard working & truly innovative nation, world need a safe & scientific America.
✓ Any other country welcome to be superpower & take world's leadership but they have to come through their own invented/developed existence(s) BUT may not through the American developed existences like IT/ICT and Media Communications.
✓ Don't feel same to be staying down until you contribute your hard labors to the global development & you do significant thing. Also this world is more open. 
✓ Anyone can't follow Trump's Buy American Hire American rules because they all free to choice their choices but These tips are Nutrition for a Healthy Nation, if anynation can't follow the fundamentals I asserted in above but try to walk forward, they can't sustain in the global race for even a single day. 
Hasanuzzaman Talukdar (HATASHE) 
International Consultant 
National Center for State Courts (NCSC) 
(NCSC Provides Trusted Leadership, Proven Solutions, Partnering for Justice, Better Courts) 

Wednesday

Tagged under:

Hatashe Opinion on EDT/UX: Excise Duty Tax (Ubgare Xulko) Rates declared by Finance Minister of Bangladesh Government


Firstly I have share that present Ruling Party (RP) of our Government of Bangladesh (GoB) made few people in their opposition since the inception that they are may risky for their freedom of power exercise. So, now if they say anything reverse of GoB & their decision, because they are opposition of RP/GoB. I'm not sure that if I fallen in this category but definitely I've few problems with the RP/GoB, so always I try to be stopped say anything against RP/GoB & their decision except I attack & harass personally by RP/GoB. 

But now, such a issue has been appeared that I have to say something about it that against GoB decision. But not anything personal of my matter nor interest yet. 

Recently Finance Minister of Bangladesh Government declared the Rate of Excise Duty Tax (Ubgare Xulko) that will deducted automatically from the each & every bank users accounts' deposited money (DM) even while a bank user deposit & withdraw money. 

The EDT/UX (Ubgare Xulko) rates declared by FM/GoB are as bellow; 
✓ BDT 100,000.00 DM to BDT 10,00,000.00 DM = BDT 800.00 EDT/UX. 
✓ BDT 1 Million to BDT 10 Million = BDT 2,500.00 EDT/UX. 
✓ BDT 10 Million to BDT 50 Million = BDT 12,000.00 EDT/UX. 
✓ BDT 50 Million to BDT 50+ Million = BDT 25,000.00 EDT/UX.  

When MLM business started in Bangladesh and/or first I introduced with it during 2004-2005 we while I was studying in HSC. When I saw their business structure, firstly I said that it's not fair because a bottom line user will be failure to conduct their duties and in massive level the business will failure & known as fraud, indeed MLM was a non-productive business. But I saw many of my friends & relatives engaged into the MLM business. The MLM business was too started by highest educated & powerful people in Bangladesh. 

Now, my point is Excise Duty Tax (Ubgare Xulko). I'm not student of economics nor I studied finance but from my use of sense. I would like to share the following points: 
1. What is the benefits of Bangladesh Government to storage the Bank Users money in the Bangladesh Bank? 
a) Government will re-distribute the EDT money to the IGA & entrepreneurship purpose to the marginalised people. 
b) How is it wise planning? 
2. The EDT/UX will badly affect to the low depositor users. 
3. Is it not good plan to re-distribute the already reserved money of Bangladesh Bank to those bank users for business, industrial, agriculture or others suitable purposes INSTEAD storage of bank users local currency, local income? 

I don't say that FM/GoB are doing it intentionally to damage the Banking System but I recommend to analysis more clearly & accurately. So it's better to stay far away from the such political decision in the name of banking & finance sector development. 
--- 
Hasanuzzaman Talukdar (Hatashe) 
Individual Consultant
Asian Development Bank (ADB)
(ABD/CMS No. 116805)

Sunday

Tagged under:

Case Study on Ex Chairman of Barovatra Government Primary School Management Committee Mr. Miron Miah and a Education Scam plus Sexual Assault Case

Mr. Miron Miah, a Senior Teacher of English Studies in Nanikhir High School located in Muksudpur upazila of Gopalganj district in Bangladesh. He born and raised in his native village Barovatra in the Nanikhir Union and also he studied in Gopalgonj & Dhaka. 

Mr. Miron Miah did different remarkable contributions in the village and the Communities' people through organized cultural & traditional activities and literature creativity practices for he is also a poet, novelist and playwright. His contributions were important reagents for social changes happened in the rural society here. 

Now he is approximately​ 50 years old and continuing teaching job after paused  (suspension) of more than 2 years during 2013-2016. In 2013, Mr. Miron Miah was also Chairman of the Barovatra Government Primary School Management Committee, from where the scam & sexual harassment been sourced for 4 years now continuing. Now the case is under Gopalgonj Court for a legal solution. 

The background of the case study occured in 2013, the Barovatra Government Primary School Managing Committee were short to recruit an Office Assistant. Few local leaders & committee members pre-selected a person for this position. But Chairman of the Managing Committee Mr. Miron Miah directly opposed their decision. So soon after few weeks later he fallen in a sexual trap, and the sexual assault case gone through the Courthouse. So how directly & openly a conspiracy has been coordinated. 

The girl was his ex student who was Secondary School Certificate (SSC) exam candidate in 2010 and stayed in his school upto 2011 then she stopped study & involved to job. But the case filed as "a teacher has gone to tutoring the girl student in her home at night and then the teacher sexually assaulted to the girl". 

Because until fully proved of the case it's very difficult to identify by the court that exactly what happened. 

In this circumstance, considering the Primary School staff recruitment scam, the two assumptions are very clear:

1. The force entry sexual assault or rape case is fully a false to make victim to the teacher base on the Barovatra Government Primary School's staff recruitment ground. 

2. A sexual assault/rape or sexual relationship has been really occurred by the teacher that was an organised conspiracy & trap conducted base on the Barovatra Government Primary School's staff recruitment ground. 

Mr. Miron Miah's this case handing by Advocate Mohiuddin Khokon (his lawyer) in the Gopalgonj (ADM) Court since 2013. Mean time the girl withdraw their two witnesses by saying that the witnesses' intention to save the teacher. Few magistrates (judges) already changed and mean-times a woman magistrate was appointed and her remarkable comment was that she asked the girl; the girl was 2010 SSC candidate and she leaved school & totally stopped study by 2012 then she joined works in garment factory & others, so why teacher had to go her house in 2013 to tutoring her? There were no suitable answer from girl's side and shortly the lady magistrate/judge also transferred. 

There a common postulate may Courts practice that Crimes Involved with Punishment, as a book should have text inside, as a newspaper should have news. 

So from the assumption no. #1, the main conspirators have to identify and have to be short of the punishment. 

From the assumption no.#2, the main conspirators have to be identify & have to be short of the punishment and if the teacher also did crime as complain filed that the sexual assault to the girl instead of being concern, so he is also subject to suffer his punishment that already as a suspect he arrested & has gone to jail, and also harassing for 4 years under the total case procedures. 

Different sources it's indicated that the conspiracy conducted from the full concern of Ex Minister Lt. Col. Faruk Khan, MP and directly by his supporters & party's local leaders. For once Mr. Faruk Khan was asked by the teacher Miron Miah; Leader (Faruk Khan), you do many developments works in your parliamentary seat's area but also may I know that why people don't like you? 

Mr. Miron Miah also depended on his lawyer that lawyer handing the case properly & lawyer know when & how whatever will have to speak & inform to the court. But being harass for 4 years, he is tired & being sick physically. Besides, he has regular school & family duties too. So his will to transfer this case to the crime branch of NSI and/or any other relevant Intelligence Agency. 

Mr. Miron Miah's expectation is not very high but he expected very logically. 

So there are a same strong recommendation may have to be delivered by the International Consultant of National Center for State Courts (NCSC) for the NCSC also is a networking organisation with the Bangladesh Supreme Court, Bangladesh High Court, Bangladesh's all Courts and Jurisdictions systems.  

Notes: Request for considering +/- 2% error in the CASE STUDY entitled "Case Study on Ex Chairman of Barovatra Government Primary School Managing Committee Mr. Miron Miah and a Education Scam plus Sexual Assault Case" has been prepared unofficially base on the FIELD WORK (not investigation) started since 2015.

Hasanuzzaman Talukdar (HATASHE) 
International Consultant 
National Center for State Courts (NCSC) 
(NCSC Provides Trusted Leadership, Proven Solutions, Partnering for Justice, Better Courts) 

Thursday

Tagged under:

NCSC' Institute of Court Management (ICM) Certification Programs for Court Security Officers


Courthouse always belongs to the two important entities;
1) Must be accessible and
2) In centralized locations,
Because they are vulnerable to acts of random violence.

While there is no one solution to issues concerning court security, proper planning must involve collaboration with law enforcement offices, emergency agencies, and governing bodies, but also the integrity of the judicial process.

A Court & Jurisdictions Security Officer integrated with the few emergency skills including how to:
✓ Respond to an Active Shooter,
✓ Best Practices in Court Security,
✓ Judicial Threat Management,
✓ Body Language as a Communication Tool,
✓ Use of sense and much more!

Courts must have proper court security procedures, technology, personnel, and architectural features, to not only protect the safety of the people and property within and around the courts and Jurisdictions.


Source: Court Security Officer Training, National Center for State Courts (NCSC) | Institute of Court Management Certification Programs (www.icmelearning.com)

Sunday

Tagged under:

Story of King Abdullah bin Abdulaziz and President Barack Obama


King Abdullah: Listen Mr. Obama, I gave too much efforts behind you elected as President of United States. You never had ability to be even a white house staff.
Barack Obama: Yes, I know that Sire (সায়ার) that why I came here to visit you and know your willing. 
Abdullah: First you make administrative change inside US Government which will Saudi Arabia pro. Second is that you have an assignment to make down Libya & Gaddafi. No longer I wanna see him. 
Obama: I will do everything as your guidance but USA is already tired for Iraq & Afghanistan war that was also your task for America. 
Abdullah: Don't forget Mr. Obama, Saudi Arabia paid very high standard figure for the total war expenses. We paid $5 Trillion dollars for US & your allies. Now if you want not fight for Libya, the it's your choice, I will offer Russia or others to be our partner. But if you want, so please give me your Libya war budget.
Obama: Ok, King, I have to talk my Defense Secretary, Advisers, Commission Chairman and relevant others for the budget estimate & war planning. But you also try to take Muslim countries under control. I think, we have to change Libya war policy so it's estimate will double to triple than Iraq war.
Abdullah: Don't anxious about war costing, KSA is capable to pay any figure you demand, you know that Mr. Obama. Including, you are free to sieze all resources, gas & oil and others to take your country. 
Obama: Yes Sire. How long time you expect to get down Gaddafi? 1 Week, or 2 week or a month? 
Abdullah: As soon as possible by ensuring keeping me & KSA safe & hide. 
Obama: OK King. We agreed. 

Friday

Tagged under:

Microstory of Mafia & St. and Gangsters & Co., By Raych Hatashe


As I said my morals are Crime Never Best, Crime Never Success, Crime Never Sexy, Crime Never Experiment, Crime Perish Life, Crime Make Living Death, Crime Never Win. But always GoB has been trying to present me as a criminal. The reason only I'm not a AL and I have arms training while I was in Navy and indeed each & every military retired persons are skilled on arms operations. I resigned from Navy through legal procedure but not by conducting any crime nor ran away. I am working hard, struggling hard to survive and to reach a standard professional career. By this time, my 11 years working experience achieved & 12 continuing. I am looking for a permanent & regular settlement of job. But again and again still it's interrupt due to lack of accountabilities & don't follow the job protection law. That the law implementation responsibilities bound to the government. And I' not a source of hunting the underworld epics, mafia staffs and gangsters. I have no connection to any of them, I don't have involvement to any crimes or illegal activities. But also I'm being victim continuesly. Once I tried for several business too but I can't due to the lack of investment and decided to continuestion of doing professional job. But the situation everytimes​ make me vulnerable & shelterless. So finally I've taken the credentials of the Underworld Mafia Gangsters and open my company The Mafia States and Gangsters Company Limited with the combination of two different brands namely Gangsters & Co. and Mafia & St., and the company slogan is "Uncover the Underworld Life". But it's non of relevant to the crimes and criminal activities but to present the prosperities of secret of successful & happier life, and the original underworld's crimes & criminals trace will not be exist in the entireworld the planet Earth Atlantis for why I have been targeted object by the government & their agencies of law enforcement, military, espionages & etc. So all the credentials of the Underworld Mafia Gangsters willingly I accepted upon me through creating the company The Mafia States & Gangsters Co. Ltd. My company and it's two different brands & services will address the Underworld, Mafia, Gangsters and those are very innocent words and anyone belonging to the terminologies will no longer indicate as criminal nor their activities are any crimes. But the words Underworld, Mafia and Gangsters are everlasting symbols of hard-works, successful & happier life, secrecy of prosperous, and remarkable example of best persons in the society forever. So know the great philosophy, knowledge and wisdom of mafia; apply the mafia states into the underworld of your life & livelihood; and by the uncovered the underworld of life be a gangster. 
Hatashe Ri Seldon 
Founder CEO 
The Mafia States and Gangsters Co., Ltd.

Thursday

Tagged under:

INRI (fullsong): Jesus Nazarenus Rex; A Deo Rex, a rege lex. Jesus Christ.

INRI: Jesus Nazarenus Rex; A Deo Rex, a rege lex. Jesus Christ.


Audio at Sound Cloud: https://soundcloud.com/hatashe-defense-and-churches-of-gkkh/inri-fullsong-jesus-nazarenus 

Jesus Nazarenus Rex; A Deo Rex, a rege lex.

In the beginning God created Jesus Rex.

In him was life and lux, forever, over all creation. God created heaven and earth than life and human.

Iesus Nazarenus Rex; A Deo Rex, a rege lex. First God created Jesus Rex, in him is life and lux.

Love each others, worship God and rule over all living. God created Jesus Rex in the beginning. 

Worship God because Jesus crucified for mankind's sin. Jesus rise after death than taken up to heaven.

Be holy through water and baptize by the words of sprite.
Worship God,Jesus is greater than us-living water the Rhine.

Jesus Nazarenus Rex. I'm in love with the shape of you Jesus Christ!

Jesus Nazarenus Rex; A Deo Rex, a rege lex. Jesus Christ.

Sunday

Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ স্বপ্নবিশ্ব (১৩ - ১৫)


১৩: 
প্যানারোমার সুউচ্চ আকাশের সীমানা হতে জিনা নেমে আসলো ভুমিতে কিশোরটির কাছে। 
কি নাম তোমার? জিনা প্রশ্ন করে। 
ওবিরিক! আমার নাম। কিশোর উত্তর দেয়। 
তুমি এখানে কি করে আসলে? জিনা জানতে চায়।
আমার বন্ধু মাইলেজকে খুজতে এখানে এসেছি কিছুক্ষন আগে। আমার কাছে তথ্য ছিলো সে এখানে আসবে। সে উত্তর দেয়। 
জিনা জানতে চায়, মাইলেজ! কে মাইলেজ? 
কিশোর জিনার দিকে কিছুক্ষন তাকিয়ে থেকে বললো, তুমি মাইলেজ। গতকাল জাগরনে তোমার সাথে পার্থিব বিশ্বে আমার কথা হয়েছিলো। তুমি বলেছিলে প্যানারোমার নীল বৃষ্টির মাঝে তোমাকে খুজে পাওয়া যাবে। মনে পড়ে? তুমি কি বলো নি মাইলেজ? 
কিছুটা আড়ষ্ট স্বরে জিনা বললো, হ্যা। বলেছিলাম। এখন মনে পড়েছে কিন্তু সে তো গতকাল নয় কিছুদিন আগে হবে হয়তো। 
ওবিরিক বললো, যাইহোক, তুমি তো আমার সেই বন্ধু। 
বেশ অবাক হলেও জিনা মনে মনে অনেক খুশিই হলো যে এই একাকী জীবনে বিশেষ করে প্যানারোমায় একজন বন্ধু পাওয়া গিয়েছে। কথা বলা ও সময় কাটানোর একজন সংগী পাওয়া গেল। 
প্রকৃতপক্ষে প্যানারোমার অতিপ্রাকৃতিক পরিবেশ এবং আঠারো হাজার জীববৈচিত্রের সম্মিলিত প্রয়াসে তারা ওবিরিককে সৃষ্টি করেছে তাদের সম্মিলিত মাইন্ড পাওয়ারের ক্রমাগত প্রচেষ্টায়। কারন মাইক্রোফরেস্টের সম্মিলিত অতি প্রাকৃতিক শক্তিরা জিনাকে এই ওবিরিকে উপহার দিয়েছে, প্যানারোমায় তাদের অথিতিকে। 
হায়, জিনা মাইলেজ!

প্যানারোমা তাদের অতিপ্রাকৃতিক শক্তি ও সম্মিলিত মাইন্ড ফোর্সের প্রচেষ্টায় ওবিরিককে সৃষ্টি করেছে শুন্য থেকে, তাদের মাইন্ড ও ন্যাচারাল পাওয়ার থেকে, যে বিশ্বাস করে সে অন্যসব স্বাপ্নিকদের মতোই সৃষ্টি এবং গতদিনেই সে জাগরনে মাইলেজকে বন্ধু হিসেবে পেয়েছে। 
ওবিরিক! এই সুবিশাল প্যানারোমায় অতি প্রাকৃতিক পরিবেশের প্রেমময় সৃষ্টি মাইলেজের জন্য। 
মাইলেজ! জিনার নতুন নাম। প্যানারোমা তাকে এই নতুন নাম দিয়েছে। 
জিনার মস্তিস্কের ভেতরে নিউরনের গভীরে কেউ তাকে ডাকলো, মাইলেজ। 
নিঃশব্দে মাইলেজ উত্তর দেয়, কে কে? সে অবাক হয়। 
তার মস্তিস্কের ভেতরে উত্তর আসে, আমি প্যানারোমা মাইলেজ। ওবিরিককে ভালবেসো, তাকে দেখে রেখো। ওবিরিকের প্রাথমিক সুস্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার দায়িত্ব তোমার মাইলেজ। প্যানারোমায় তুমি অথিতি এবং প্যানারোমা তোমাদের প্রটেকশন দিবে এবং সব প্রয়োজন পুরন করবে। ওবিরিক তোমার ভালবাসা, তোমার জন্যই তাকে তৈরী করা হয়েছে। এতে আছে তোমাদের উভয়ের কল্যান এবং প্যানারোমার ভবিষ্যত পরিকল্পনা। 

মাইলেজ তার হাত দুটি বাড়িয়ে দিলো ওবিরিকের দিকে। ওবিরিকের ঠোটে চুম্বন করে বললো, এসো আমার সাথে ওবিরিক। তোমাকে আমি ভালবাসা শেখাবো। তুমি কি জানো ভালোবাসা কি? 
প্যানারোমার আকাশে নক্ষত্রগুলির দিকে তাকিয়ে ওবিরিক ভাবতে থাকে এবং প্রশ্ন করে, ভালোবাসা! ভালোবাসা কি মাইলেজ?  

১৪: 
দায়েসগন! সুবিশাল বিস্তৃত প্যানারোমায় যাদের বসবাস। সভ্য ড্রিম ইউনিভার্সের স্বাপ্নিকরা কখনো দায়েসদের সম্পর্কে জানতে পারে নি, নামও শুনেনি। কিন্তু মাইলেজ আর ওবিরিক প্যানারোমায় এসে তাদের অস্তিত্ব খুজে পেল এবং কিছু দায়েসদের সাথে তাদের সাক্ষাত ও কথপোকথন হলো। দায়েসরা অদৃশ্য। তারা স্বেচ্ছায় দৃশ্যমান না হলে তাদের ধরা, ছোয়া কিংবা দেখা যায় না। প্যানারোমা হচ্ছে দায়েস জাতির আবাস ভুমি আর তাই হয়তো এখানে অন্যকোন সভ্যতা গড়ে ওঠে নি। দায়েসজাতির প্রধানকে বলা হয় এলডার। এলডার দায়েস। কিন্তু আদতে এলডার দায়েস বয়স্ক হতে হবে এমনটা নয়। তবে সাধারনত একজন এলডার দায়েস হতে হতে সে যথেষ্ট বয়স্ক হয়ে যায়। দায়েসদের মৃত্যু নেই। তারা অমর। দায়েসগন কখনো বৃদ্ধ হয় না! বয়সের ভারে ন্যুজ হয় না! দুঃখ-শোক কখনো তাদের স্পর্শ করে না! তারা সর্বত্র বিচরন করতে পারে! তারা তাদের ইচ্ছেমত সবকিছু করতে পারে প্যানারোমায়। প্যানারোমায় তারা সবকিছুর উপরে রাজত্ব করে! তারা চিরদিনই অমর হয়ে থাকবে! চির যৌবনা হয়ে থাকবে। পুর্ব-পশ্চিম, উত্তর-দক্ষিন, আসমান-জমিন সর্বক্ষেত্রে প্যানারোমা তাদের বিচরন! প্যানারোমা দায়েসদের আবাসভুমি। ধ্বংস হয়ে যাওয়া মাইক্রো ফরস্টে মাইলেজ ও ওবিরিকের বসবাসউপযোগি একটি জাগরনের শহর নির্মান করে দিয়েছে ওরা। এই শহরের নাম দিয়েছে স্বপ্ন শহর। স্বপ্নের শহর। ড্রিম সিটি!  

১৫: 
দায়েসগন! ড্রিম ইউনিভার্সের সবচেয়ে আশ্চার্যতম ক্রিয়েশনের একটি। ওবিরিক ও মাইলেজের জীবনবৈচিত্র দায়েসদের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যুক্ত হয়ে গিয়েছে। ওরা প্যানারোমাতে অন্যকারো উপস্থিতি কিংবা অস্তিত্ব বিশেষ করে এভাবে আশাই করে নি। কিন্তু দায়েসদের সাথে ওদের দেখা হয়েছে। তারপর অনেকদিন, অনেকবছর কেটে গিয়েছে কিন্তু দায়েসদের সাথে ওদের আর দেখা হয়নি কিন্তু ওরা আছে অদৃশ্য, ওদের সবকিছুর উপরে নিয়মিত দায়েসগন পর্যালোচনা করছে। এভাবে কেটে গিয়েছে বহুবছর। ওবিরিক এখন পরিপুর্ন যুবক। ড্রিমসিটি ভরপুর হয়ে আছে জাগরন সভ্যতার সব আধুনিক বিজ্ঞান-প্রযুক্তিময় ছোয়ায়। বিশাল বিশাল ইমারত-অট্রালিকা আর নয়াভিরাম প্রাকৃতিক ও কৃত্রিম সৌন্দর্য স্বপ্নের শহরকে আচ্ছন্ন করে রেখেছে। কিন্তু এই শহরের বাসিন্দা শুধু ওরা দুজন - ওবিরিক ও মাইলেজ। দায়েসদের সাথে ও আর সাক্ষাত হয়নি বিগত একহাজার বছরে কিন্তু দায়েসদের বার্তা ওরা গ্রহন করে থাকে। দায়েসদের সাথে কথা হয় প্রায়শই, মাঝে-মাঝে। 
ওবিরিক ও মাইলেজ হাতধরে হাটছে ক্রংক্রিটের রাস্তার উপর দিয়ে। রাস্তার দুপাশে ইট ও কাঠ দিয়ে দায়েসদের তৈরী করে দেওয়া ভাস্কর্যগুলি ওরা দেখছে। মাইলেজের স্তনদ্বয়ের উপরে এক টুকরো সাদা কাপড়ের ফালি আর কোমরের নিম্নাংশে লাল রংয়ের স্কাট এবং ওবিরিকের শরীরে চাপানো লম্বা একটি আলখাল্লা, কিং স্যুট!
এক টুকরো দমকা বাতাস ওদের শরীরের উপরে আছড়ে পড়লো। কিছুটা হিম, কিছুটা লুহাওয়া মাইলেজের উন্মুক্ত বুকে শিহরন জাগিয়ে তুললো আর ওবিরিকের পাতলা কাপড়ের আলখাল্লাকে দোলা দিয়ে গেল। সে বাতাস আবার ফিসফিস করে ওদের কানের কাছে ভাষার সঞ্চারন করলো। বাতাসের প্রবাহ ফিসফিস শব্দে অর্থবোধক ভাষার সৃষ্টি করলো যে ভাষা শুধু ওরাই বুঝতে পারে। 
ওবিরিক ও মাইলেজ। তোমরা কেমন আছো? 
সে বাতাসের প্রবাহ আর ফিসফিস শব্দ ওদের শিহরিত ও আবেগাপ্লুত করে তুললো। বাতাসের ভাষা তাদের বন্ধুত্বের কথা স্মরন করিয়ে দিলো দায়েসদের সাথে। 
হাই এলডার! ওদের মুখ থেকে অস্ফুত স্বরে বেরিয়ে এলো। আমরা খুশি হয়েছি। আমরা সুখি হাই এলডার। আপনাদের দেয়া বন্ধুত্বের এই উপহারের কোন বিনিময় আমরা দিতে অক্ষম কিন্তু আমাদের কৃতজ্ঞতা ও আনন্দের সীমা নেই। 
বাতাসের প্রবাহ ফিসফিস হয়ে শো শো শব্দে ভাষার সঞ্চারন করলো; আজকে সন্ধ্যের পরে ডিন সমুদ্রের তীরে এসো। অনেক সুন্দর ও প্রাকৃতিক পরিবেশে তোমাদের সাথে আজ রাত্রি উপভোগ করবো। তোমাদের অনেক ভাল লাগবে। 
ওবিরিক বললো; ডিন সমুদ্র! সে তো অনেক দুরে! এটার কথা আমরা পড়েছি ড্রিম লাইব্রেরির বইগুলোতে। সেখানে আমরা কি করে যেতে পারি। আমাদের হালকা পালকের ডানা অতদুর আমাদের উড়িয়ে নিয়ে যেতে পারবে না, হাই এলডার! 
এলডার দায়েস বললেন; এলডার প্রাসাদের কর্মীরা এসে তোমাদের নিয়ে যাবে।

ডিন সমুদ্র! প্যানারোমার সবচেয়ে বড় এবং গভীর সমুদ্র। আজকে রাতে আর কোন বাতাসের সাথে ওবিরিক ও মাইলেজের কথপোকথন নয়। সরাসরি সাক্ষাত হবে ওদের দায়েসদের সাথে। বিশেষ করে এলডার দায়েস যাকে হাই এলডার সম্বোধন করা হয় তিনি নিজে দেখা দিবেন প্রায় একহাজার বছর পরে। আর প্যানারোমার সমস্ত দায়েসগন বাতাসের প্রবাহের মাঝে দেখতে পাবে ও শুনতে পাবে এলডার দায়েস এবং মাইলেজ ও ওবিরিকের সাক্ষাতকার। 

এ হাওয়া! এ বাতাস। সৃষ্টিত্বত্তের সবচেয়ে শক্তিশালী তিন প্রাকৃতিক সৃষ্টির একটি। 

আগুন! পানি! বাতাস। 

দায়েসগন এই বাতাসের দ্বারাই সৃষ্টি হয়েছে। তাদের ধরা যায় না, ছোয়া যায় না। শুধু অনুভব করা যায়। 

এলডার দায়েস বললেন; তোমাদের একটি সুসংবাদ দিতে চাই ওবিরিক ও মাইলেজ। 
হাই এলডার! সমস্বরে ওরা উত্তর দিলো। 
এলডার বললেন; তোমাদের সাথে এই বন্ধুত্বকে আমি চিরস্থায়ী বন্ধনে আবদ্ধ করে দিতে চাই। 
অতঃপর তিনি বাতাসের মাঝে একজন কিশোর দায়েসের প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে বললেন; সে এলডার দায়েস গোত্রের সন্তান। আর তোমাদের দুটো মেয়ে সন্তান হবে এবং তোমাদের কনিষ্ঠ মেয়ের সাথে দায়েস গোত্রের এই ছেলের বিয়ে হবে। এবং তারা নতুন একটি প্রজম্ন, নতুন জ্ঞান-বিজ্ঞান ও সভ্যতা গড়ে তুলবে। আর তোমাদের বড় মেয়ের মেয়ে সন্তানের জন্যও আছে আরো সুন্দর কিছু পরিকল্পনা। 
ওবিরিক ও মাইলেজ বললো; আমরা খুব আনন্দিত, মহামান্য এলডার! 


{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি। 
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe 
Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ স্বপ্নবিশ্ব (১১ - ১২)


১১: 
স্বপ্নবিশ্বের অতি প্রাকৃতিক একটি মরভুমি যেখানে বনভুমির উপস্থিতিও আছে যার নাম প্যানারোমা। এই অঞ্চল জঙ্গল নয় তবে মরুভুমিতে স্বাভাবিকের চেয়ে অধিক পরিমান গাছপালা রয়েছে এবং কিছু দুরে দুরে মাইক্রো ফরেস্টের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। প্যানারোমার আয়তন প্রায় সমগ্র স্বপ্নবিশ্বের তিনভাগের দুই ভাগ। স্বাপ্নিকদের জীবনে প্যানারোমা অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ। প্যানারোমাকে বাদ দিয়ে ড্রিম ইউনিভার্সের অস্তিত্ব নয়। প্রকৃতপক্ষে স্বপ্নবিশ্ব কতবড় সঠিক পরিসীমা অজানা তবে যতটুকু পর্যন্ত স্বাপ্নিকদের যাতায়াত এবং আবিস্কৃত সেই বিচারে প্যানারোমা এর তিনভাগের দুইভাগ জুড়ে আছে বলে এমনটাই মেনে নেওয়া হয়েছে। এখানে অবশ্য কোন সভ্যতার উপস্থিতি নেই তবে মাঝে মাঝে স্বাপ্নিকদের উপস্থিতি ঘটে থাকে। জিনা আগামী এক যুগ এখানে কাটাবে এমনটাই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার মেন্টাল ফোর্সের উপরে আরো চর্চা করা প্রয়োজন আর এজন্য এমন অতি প্রাকৃতিক পরিবেশ বেশ প্রয়োজনীয়। জিনা বুঝতে পারছে সাইকোহিস্ট্রির ইউনাইটেড স্টেটস কার্যক্রমের সাথে সাময়িকভাবে যুক্ত হয়ে সে শাররীক ও মানসিকভাবে অনেক দুর্বল হয়ে পড়েছে। সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশন কেমন যেন সম্মোহনীয় আর শাররীক ও মানসিক সমস্ত ক্ষমতাকে নিস্তেজ করে দেয়। জিনা এর ভয়াবহ অভিজ্ঞতার শিকার। কিন্তু সে একা কিভাবে প্যানারোমায়  থাকবে? 

১২: 
জিনা যখন প্যানারোমায় এসে পৌছুলো তখন প্রায় সন্ধ্যে ঘনিয়ে এসে আলো আধারির খেলা শুরু হয়েছে। প্যানারোমার কিছু অঞ্চলে অবশ্য মাত্র কয়েক ঘন্টা অন্ধকার বিরাজ করে। প্যানারোমায় প্রাকৃতিক আলোর উত্স সাতটি নক্ষত্র। দুটি নক্ষত্রের জম্ন হয়েছে কয়েক হাজার বছর আগে। দুটি নক্ষত্র মৃত প্রায় যা ব্লাকহোল তৈরী হবার পথে। আর তিনটি নক্ষত্র কমবেশী সমবয়সী এবং পরিপুর্ন সক্রিয় এবং একেবারে যুবক নক্ষত্র। জিনা একটি মাইক্রো ফরেস্ট বেছে নিলো যার চারপাশে বালু ও পাথরের মরুভুমি এবং কাছাকাছি কোন বনভুমি নেই। এই মাইকোফরেস্টের ভিতরে আছে একশত কিলোমিটার দৈঘ্যের একটি নদী ছোটবড় কিছু খাল ও চ্যানেল, ছোটবড় চল্লিশটি পাহাড়, জলপ্রপাত এবং বেশবড় একটি হ্রদ। প্যানারোমায় এসেই জিনা প্রথমে এই মাইক্রো ফরেস্টটির উপরে একটি সার্ভে করলো প্রায় মধ্যরাত পর্যন্ত। জিনা দেখলো এই মাইক্রোফরেস্ট আঠারো হাজার প্রজাতির জীববৈচিত্রের উপস্থিতি রয়েছে। শেষ রাত পর্যন্ত জিনা তার মেন্টাল ফোর্সকে প্রস্তুত করে নিলো কারন সকালের প্রথম প্রহরেই জিনা এই মাইক্রোফরেস্টের উপরে প্যানারোমায় তার প্রথম সাইকোহিস্ট্রিক্যাল এটার্ক করবে। খুব সকালে নক্ষত্রগুলি একে একে প্যানারোমার আকাশে বিভিন্ন অবস্থানে উঠে আসছিলো এবং একধরনের স্নিগ্ধ আলো ফুটে উঠছিলো। নিশাচর প্রানীরা ঢেরায় ফিরছিলো আর অন্য জেগে উঠছিলো। 
জিনা তার মাইন্ডের উপরে খুব জোর প্রয়োগ করলো। এটা সাইকোহিস্ট্রির ভিন্ন একটা কৌশল, এটা সে শিখেছে সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশনের লর্ড ডন আইজ্যাকের কাছে। জিনার মাইন্ড ফোর্স ঘনীভুত হয়ে স্থিতিস্থাপকের মতো পুরো মাইক্রোফরেস্টে ছড়িয়ে পড়লো, প্যানারোমার এই অংশের আকাশ ধুসর রংয়ে ঢেকে গেলো। বনভুমির সমস্ত জীবজন্তু ছোটাছুটি ও চিত্কার চেচামেছি শুরু করে দিলো। তারা কেউই মাইক্রো ফরেস্ট থেকে বের হতে পারলো না কারন চারপাশে ঘিরে রেখেছে জিনার মেন্টাল ফোর্স। মাইক্রোফরেস্টে তীব্রবেগে হাওয়া বইতে লাগলো এবং পাহাড়গুলি ফেটে গেলো এবং পানির ঝর্নাধারা বন্ধ হলো। পাহাড় ও মাটির গভীরের সমস্ত সুপ্ত আগ্নেয়গিরি একসাথে জেগে উঠলো আর মুহুর্তেই পুরো মাইক্রো ফরেস্ট দাবানল শুরু হয়ে গেলো। নদী, খাল, চ্যানেল, হ্রদ আর সমস্ত পানি শুকিয়ে গেলো। পাহাড়গুলি চুরমার হয়ে ভুমির সাথে মিশে গেলো। সন্ধ্যের কিছুক্ষন আগে ধ্বংস যজ্ঞ শেষ হলে। আর তখন আকাশ থেকে তীব্র বেগে বৃষ্টি নামতে শুরু করলো। জিনা দেখলো এই বৃষ্টির পানিগুলি নীল রংয়ের। নীল বৃষ্টির মধ্যে দিয়ে জিনা মাইক্রো ফরেস্টের ধ্বংসস্তুপের মধ্যে দিয়ে উড়ে চললো। হঠাত করে জিনা দেখতে পেল নীচের বনভুতি একটি কিশোর দাড়িয়ে আছে। তার শরীর বৃষ্টির পানিতে ভিজছে আর সে যেন জিনাকে দেখতে পেয়ে সুউচ্চে দৃষ্টি আকর্ষন করতে চেষ্টা করছে। 

{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি। 
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe 

Tuesday

Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ স্বপ্নবিশ্ব ১০


১০:
ম্যাডাম লেডী গ্রেট কুইনের ক্যাবিনেট হচ্ছে গ্রেট ওয়ার্ল্ড'এর আপার হাউজ। তাছাড়া কেন্দ্রীয় শাসন ব্যবস্থার সেকেন্ডারী হাউজকে বলা হয় সেন্সর। ক্যাবিনেট এবং সেন্সর - এই দুইয়ে গ্রেট হাউজ। লেইন ফোর্থ নগরীর আট বর্গকিলোমিটার আয়তনে নির্মিত আটতলা বিশিষ্ট গ্রেট হাউজ। বলা হয়ে থাকে গ্রেট ওয়ার্ল্ডের সবচেয়ে বড় অফিস হচ্ছে এই গ্রেট হাউজ যদিও আদতে এটা অফিস নয় বরঞ্চ অফিসের চেয়েও বড় কিছু ক্যাবিনেট ও সেন্সর। গ্রেট হাউজে নিয়মিত অফিস করেন ম্যাডাম লেডী গ্রেট কুইন এবং তার হাউজ রিপ্রেজেন্টেটিভগন। ক্যাবিনেট কক্ষে একসাথে একহাজার ক্যাবিনেট মেম্বারসহ, অথিতি, সাংবাদিক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও অন্যান্যসহ একসাথে এর ধারন ক্ষমতা পাচহাজার। সেই সাথে এতে আছে অতি উন্নত বিজ্ঞান-প্রযুক্তি এবং মেন্টাল ফোর্সের সুযোগ-সুবিধা।
ক্যাবিনেটের সবচেয়ে তরুন সদস্য রিলেম হার্টজ। গ্রেট কুইনের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে প্রায় দুশো ক্যাবিনেট সদস্যরা এসেছেন, আরো এসেছেন সেন্সর মেম্বারগন ও অন্যান্য অতিথিবর্গ। শুভেচ্ছা জানানোর জন্য রিলেম হার্টজ ম্যাডাম লেডি গ্রেট কুইনের সামনে আসলো এবং একটি বই এনেছেন তিনি গ্রেট কুইনের জন্য।
রিলেম বললেন: ম্যাডাম লেডি, শুভ জন্মদিন। এই বইটা আপনার ভাল লাগবে আশা করছি।
গ্রেট কুইন বললেন: মাইবয়! আমার তরুন ক্যাবিনেট মেম্বার। কেমন আছো? তোমার সাথে এটা আমার দ্বিতীয় সাক্ষাত। অনেকদিন পার হয়ে গিয়েছে।
রিলেম বললেন: ইয়েস ম্যাডাম। দশ বছর। ক্যাবিনেট মেম্বার হিসেবে আমার অভিষেকের সময় আপনার সাথে সরাসরি এভাবে মুখোমুখি সাক্ষাত ও কথা হয়েছিলো।
গ্রেট কুইন বললেন: কিন্তু আমি ঠিকই তোমাকে মনে রেখেছি। তুমি খুশি হয়েছো নিশ্চয়।
রিলেম বললো: আমি খুব আনন্দিত।
গ্রেট কুইন বললেন: যাইহোক, আজকে কিছুক্ষন তোমার সাথে কথা বলা যাক। তোমার কথা শুনবো। বলো কাজকর্ম কেমন চলছে? যদিও প্রায়শই তোমার সংবাদ আমি খোজখবর নেই, আমার কাছে আসে।
রিলেম বললো: সমস্ত ক্যাবিনেট ও সেন্সর মেম্বারগন এমনকি গ্রেট হাউজের সমস্ত গ্রেট অফিসার ও কমিশনারদের নিজস্ব অফিস আছে কিন্তু আমি একজন ক্যাবিনেট মেম্বার হয়েও বিগত দশ বছরে এখনো নিজস্ব অফিস বরাদ্দ পাইনি। অথচ শত বছর ধরে হাউজের অনেক কক্ষ এখনো খালি পড়ে আছে।

পাশেই উপবিষ্ট ফার্স্ট মিনিস্টার মোজেজ ফোনার দিকে তাকালেন ম্যাডাম লেডী গ্রেট কুইন: দশ বছর ধরে এটা কি ধরনের মজা হচ্ছে ফার্স্ট মিনিস্টার? তোমার কি গ্রেট ওয়ার্ল্ড হাউজে কাজ করবার ইচ্ছে আছে কিংবা নাই?
ফার্স্ট মিনিস্টার মোজেজ ফোনা বললেন: মাই লেডী, ইউর ভেনারেশন! মাফ করবেন। দশ বছর আগে এক ইনাগোরেশন অনুষ্ঠানে আপনী উনাকে মৌখিকভাবে ক্যাবিনেট মেম্বার হিসাবে অনুমোদন করেছিলেন তখন তার বয়স ছিলো মাত্র বিশ বছর আর তখন থেকে তিনি নিয়মিত ক্যাবিনেটের সমস্ত সেশনে অংশগ্রহন করে যাচ্ছেন। যদিও তাকে বাই পেপার্স কোন নিয়োগ দেয়া হয় নি কিংবা বেতন,ভাতা ও অন্যান্য বিলও ইস্যু করা হয় নি তবুও ক্যাবিনেটের বাজেটের ফাইভ পার্সেন্ট ওভারহেড থেকে তার বেতন, ভাতা, বিল ও অন্যান্যা পাওনা পরিশোধ করা হয়ে আসছে। যেহেতু তাকে অফিসিয়ালি কোন নিয়োগপত্র এখনো দেয়া হয়নি তাই অনেক সুবিধাই তাকে এখনো দেয়া হয়ে ওঠে নি।
গ্রেট কুইন বললেন: তাহলে ফার্স্ট মিনিস্টার, তুমি আমাকে বলো যে গ্রেট কুইনের মুখের কথা যদি প্রয়োগ করার মতো যথেষ্ট না হয়ে থাকে তাহলে তাকে কিভাবে বলতে হবে? কিংবা গ্রেট কুইনের কাছে যদি তার ক্যাবিনেট মেম্বার গুরুত্বপুর্ন ও প্রয়োজনীয় না হয় তবে সে আর কাকে নিয়ে কাজ করবে? বলো!
ফার্স্ট মিনিস্টার বললেন: ইউর লেডী, ক্যাবিনেট মেম্বারদের নিয়োগ পত্রে ম্যাডাম লেডী গ্রেট কুইন স্বাক্ষর করেন।

গ্রেট কুইন বললেন: কিন্তু স্বাক্ষর করবার সেই পেপারটা কোথায়?
ফার্স্ট মিনিস্টার মোজেজ ফোনা তার স্যুটের ফাইল থেকে গ্রেট এমবেড সম্বলিত একটি পেপার বের করে গ্রেট কুইনের হাতে দিলেন।
ম্যাডাম লেডী গ্রেট কুইন সেটাতে স্বাক্ষর করে দিলেন। বললেন: এটা তুমি দশবছর ধরে স্যুটের ভিতরে বয়ে বেড়াচ্ছো, এটাই বলবে তো? আমার পুর্বপুরুষদের ইতিহাস এবং আমার অতীত অভিজ্ঞতা থেকে বলছি যে এসব কিন্তু শুভ লক্ষন নয় ফার্স্ট মিনিস্টার। গ্রেট ওয়ার্ল্ডের গায়ে কোন আচড় লাগলে তোমার ফার্স্ট মিনিস্টারশিপ থাকবে না, তোমার কোন পরিচয় খুজে পাওয়া যাবে না। অতীত থেকে শিক্ষা নিতে পারো না?
রিলেম হার্টজকে গ্রেট কুইন বললেন: ঠিক আছে তুমি যাও। আগামীকাল থেকে তোমার নিজস্ব অফিস কক্ষে তুমি বসতে পারবে, তোমার বাসা ও অন্যান্য সমস্ত সুযোগ-সুবিধা আগামীকাল থেকেই নিশ্চিত করা হবে এবং আমি নিজেই সেটা নিশ্চিত করে তবেই সন্ধ্যের ক্যাবিনেট সেশনে যোগ দিবো এবং তোমাকে অফিসিয়ালী হাউজে পরিচয় করিয়ে দিতে বলবো এবং আমি এই বিষয়ে কথা বলবো। কারন একজন হাউজ রিপ্রেজেন্টেটিভের বিষয় আমার কাছে অনেক গুরুত্বপুর্ন।

প্রায় মধ্যরাত পর্যন্ত জন্মদিনের অনুষ্ঠান চললো। দুর-দুরান্ত থেকে আগত অসংখ্য অতিথিদের সাথে সাক্ষাত করলেন গ্রেট কুইন এবং অনেকের সাথে ব্যাক্তিগত ও প্রশাসনিক খোজ খবর নিলেন।

{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe
Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ স্বপ্নবিশ্ব (৮ - ৯)


৮:
স্বপ্নবিশ্বে কিছু কিছু বিলিফের চর্চা করে থাকে স্বাপ্নিকরা এবং তার মধ্যে অধিক চর্চাকৃত একটি মতবাদ ও বিলিফ হচ্ছে চেঞ্জ বিলিফ। জীবনের কোন এক পর্যায়ে এসে স্বাপ্নিকরা নিজেদের পুর্ববর্তী জীবন এবং ধ্যান-ধারনার চেঞ্জ করে সম্পুর্ন নতুন একটি লাইফ স্টাইল গ্রহন করে থাকে। সাধারনত এডোলেসেন্ট কিংবা ইয়াং বয়সে এসে তারা চেঞ্জ হয়ে থাকে। সাধারন এই চেঞ্জ প্রক্রিয়া হয়ে থাকে অপরাধ জগতে প্রবেশ এবং সুনির্দিস্ট কিছু ক্রাইম করা এবং তার মধ্যদিয়ে প্রকৃতভাবে জীবনকে জানা। তারা সাধারন একাকী কিংবা দলবদ্ধভাবে কোন ক্রাইম যেমন কিলিং, ধর্ষন, রোবারি, কমিউনিটি কিংবা লার্জার সোসাইটি ব্লাকআউট এই জাতীয় ক্রাইমে অংশগ্রহন কর থাকে যেখানে ব্যাক্তিগতভাবে সবাই কোন না কোন পারফর্মেন্স প্রদর্শন করে থাকে ও করতে হয় আর তবেই সে চেঞ্জ প্রক্রিয়ায় অংশ গ্রহন করে নিউ লাইফ স্টাইল গ্রহন করে নিজের নাম, পরিচয় কিংবা আইডেন্টিটির সাথে 'চেঞ্জড' শব্দটা বিলিফ অংশে লিখতে পারে যা তাকে সামাজিক, অর্থনৈতিক, সরকারীভাবে রিকগনাইজড করে সমস্ত অধিকারগুলি নিশ্চিত করে। এই বিলিফের প্রতিটি স্বাপ্নিকদের চেঞ্জ হতে হয়। এটা তাদের জীবনের একটি গুরুত্বপুর্ন একটি অংশ এবং দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা চর্চা ও সংস্কৃতি এবং বিলিফের অংশ। তোমার চেঞ্জ হবার সময় হয়েছে। তুমি কি চেঞ্জড? এমন বাক্য বহুল ব্যবহৃত এখানে। ইন্ট্রিগ্রেশন অফ লেভান্ত! ড্রিম ইউনিভার্সের একাধিক ওয়ার্ল্ড মিলে এই ইন্ট্রিগ্রেশন অফ লেভান্ত। এই সভ্যতাগুলি প্রায় পুরোটাই চেঞ্জ বিলিফের চর্চা করে থাকে। আর এখানেই এই বিলিফের আদি পটভুমি। মহান ওর্ক বাহাম এই চেঞ্জ বিলিফের প্রতিষ্ঠাতা। সারাজীবন অসংখ্য ক্রাইম করতে করতে অবশেষে মৃত্যুর কিছু যুগ আগে তিনি ক্রাইমকে একটি সভ্যতার চর্চা ও সংস্কৃতি এবং সর্বপরি একটি বিলিফের অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে চেঞ্জ এর অবতারনা করেন। তিনি তার প্রিয়তমা স্ত্রীকে হত্যা, একাধিক মেয়েদের ধর্ষন এবং আরো কিছু ক্রাইমের মধ্যদিয়ে চেঞ্ছড হয়ে জীবন গভীরভাবে জানতে পারেন এবং পুরোনো জীবন থেকে মুক্তি লাভ করে নতুন জীবনে প্রবেশ করে চেঞ্জ বিলিফ প্রতিষ্ঠা করেন। চেঞ্জ লাভের জন্য এই জাতীয় ক্রাইমগুলি খুব বেশী হয় না তবে এসব গ্রহন যোগ্য। আর সর্বপরি মুখের কথা কিংবা কোন কৌশল নয় বরঞ্ছ ইন্ট্রিগ্রেশন লেভান্তে চেঞ্জ এর জন্য সবাইকে প্রমান করে দেখাতে হয় যে সে চেঞ্জ হতে আগ্রহী এবং চেঞ্জড। এবং এজন্য অবশ্য মানসিকভাবে প্রস্তুত হয়ে নিতে হয় কিংবা অনেকে হয়তো হঠাত করেই চেঞ্জ হয়ে যায়। কেউ হয়তো অন্য কারো চেঞ্জের ভাজে পড়ে যেতে চায় না কারন এটা অনেক যন্ত্রনা ও পীড়াদায়ক এবং এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া আর সবাই এটা মেনে নিয়েছে এই শর্তে যে ড্রিম ইউনিভার্সে সেই লসটাকে দ্রুতই রিকভার করা হয়ে থাকে।

৯:
দ্যা ড্রিম ইউনিভার্সের অন্যতম সমৃদ্ধ একটি নগরী লেইন ফোর্থ হচ্ছে গ্রেট ওয়ার্ল্ড এর রাজধানী। স্বপ্ন বিশ্বের জিরো আওয়ার টাইম জোন এবং একান্ন ডিগ্রি উত্তর ও শুন্য ডিগ্রি পশ্চিম কোঅর্ডিনেটসে এই নগরীর অবস্থান। ইতিহাস থেকে দেখা যায় যে অতি প্রাচীনকাল থেকেই গ্রেট ওয়ার্ল্ড একটি বিশ্ব হিসেবে প্রতিষ্ঠিত এবং লেইন ফোর্থ নগরী শিক্ষা, জ্ঞান-বিজ্ঞান এবং অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিকভাবে পুর্ব থেকেই সমৃদ্ধ ও উন্নত। এই ওয়ার্ল্ডের রাজনৈতিক ব্যবস্থা স্বপ্নবিশ্বের অন্যান্য অংশের চেয়ে ভিন্নতর। ম্যাডাম লেডী গ্রেট কুইন হচ্ছেন গ্রেট ওয়ার্ল্ডের শাসক। সেই সাথে ম্যাডাম কুইন গ্রেট ওয়ার্ল্ডের সাথে সমস্ত সহযোগী, অংশীদার এবং জোটভুক্ত বিশ্বসমুহের প্রতীকি প্রধান। যদিও বর্তমানে ভিন্নধারার ও উন্নত স্বাপ্নিক সভ্যতার রাজনৈতিক চর্চা ও ব্যবস্থা পুর্বের চেয়ে অনেক উন্নত আর অনেক সহনশীল কিন্তু প্রকৃত পক্ষে ম্যাডাম কুইনের শাসনামলে তার রাজনৈতিক সীমানা পুর্বের ইতিহাসের সমস্ত রেকর্ডকে ছাড়িয়ে স্বপ্ন বিশ্বের অনেক দুরদুরান্তে ও অধিক সংখ্যক বিশ্বে প্রসারিত হয়েছে। তবে আনুপাতিক হারে পুর্বেকার শাসকদের মতো ম্যাডাম কুইন বিলাস বহুল ও অত্যাধিক জাকজমকপুর্ন জীবন যাপন করেন না। তবে তার আছে কমবেশী প্রায় একহাজার সদস্যের একটি ক্যাবিনেট যা তার ক্ষমতা ও রাজনীতির মুল সোর্স। ক্যাবিনেট সদস্যরা বিভিন্ন রাজনৈতিক অঞ্চলের প্রতিনিধিত্ব করেন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে আসা, বিজনেস সেক্টরের প্রতিনিধি, সামরিক ও বেসামরিক উপদেষ্টা, গোয়েন্দা ও আইন শৃংখলা বাহিনীর পরামর্শক, লেখক, কবি, গবেষক, সমাজসেবক, ইত্যাদি যাদের স্ব স্ব অঞ্চল, কর্মক্ষেত্র ও সেক্টরের উপরে আছে অনেক গভীর প্রভাব, দক্ষতা, নিঃস্বার্থ অবদান এবং অনেক কঠোর ও অনুগত নিয়ন্ত্রন। গ্রেট ওয়ার্ল্ডের অঞ্চলসমুহের শাসকদের আনুগত্য এবং প্রতিকী প্রধান বিশ্বসমুহের শ্রদ্ধা ও ভালবাসা। সবকিছু মিলিয়ে গ্রেট ওয়ার্ল্ডকে অনেক শক্তিশালী, ক্ষমতাবান, উন্নত সভ্যতা ও ন্যায় পরায়ন করে তুলেছে। ম্যাডাম গ্রেট কুইন ও তার গ্রেট ওয়ার্ল্ডকে যতটা শক্তিশালী ও ক্ষমতাবান মনে হয় প্রকৃতপক্ষে তারা উভয়ই তার চেয়ে অনেক অনেক বেশী শক্তিশালী ও ক্ষমতাবান।  অনেকে মনে করে থাকে গ্রেট ওয়ার্ল্ডের অতীতের মতো স্বর্নালী যুগ হয়তো এখন আর নেই কারন সময় ও সভ্যতা বদলে গিয়েছে। কিন্তু এই ধারনাটা ভুল। ম্যাডাম কুইনের ফার্স্ট মিনিস্টার অতীতের সোনালী যুগকে স্মরন করছিলেন। ম্যাডাম কুইন এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন; এই ক্ষমতা তো এমন কিছু নয় যে সবাই দেখতে পাবে আর বলবে এইতো গ্রেট ওয়ার্ল্ডের ক্ষমতা ও বদনান্যতা! বরঞ্চ এটা প্রকাশ পেয়ে থাকে কথায় নয় কিন্তু কাজে, সবার উন্নত জীবন যাত্রার মানদন্ডে, চিন্তা ও অনুভবে।

{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe

Wednesday

Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ স্বপ্নবিশ্ব (৬ - ৭)


৬: 
সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশন এর সুনির্দিষ্ট কোন সদর দপ্তর নেই তবে স্টেটসটি একটি নেটওয়ার্ক হিসেবেও অসংখ্য প্রকল্প পরিচালনা করে থাকে যার ব্যুতপত্তি এবং বিস্তারের শিকড়টি অবস্থিত রাকা ডেভলপমেন্টে। রাকা থেকেই সাইকোহিস্ট্রির সমস্ত ঘটনা প্রবাহ, গবেষনা, স্টাডি এবং প্রকাশনা নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে ড্রিম ইউনিভার্সের সমস্ত ওয়ার্ল্ডে। রাকা ডেভলপমেন্টকে বলা হয় রাকা ওয়ার্ল্ড। 
ওয়ার্ল্ড রাকা! এর যাত্রাই শুরু হয়েছিলো সাইকোহিস্ট্রির হাত ধরে। রাকার শুরুর পথটা কখনোই মসৃন ছিলো না। একটি নতুন অস্তিস্থ হিসেবে রাকাকে একটি রিপাবলিক হিসেবেও কেউ কখনো মেনে নেয় নি সমসাময়িক সময়ে। কিন্তু অনেক চড়াই-উতরাই, বাধা-বিপত্তি এবং অসংখ্য যুদ্ধের মুখোমুখি হয়ে একপর্যায়ে রাকা নিজের অবস্থান এবং গ্রহনযোগ্যতা তৈরী করে নেয়। অতঃপর ধীরে ধীরে হাজার বছরের পরিক্রমায় রাকা একটি স্বাধীন এবং সার্বভৌম বিশ্ব রাকা ওয়ার্ল্ডে পরিনত হয়। যদিও সাইকোহিস্ট্রি এখনো ব্যবহারিক প্রয়োগের তেমন ফলপ্রস্যু কোন পর্যায়ে আসে নি তবুও এই বিজ্ঞান ও এই গনিতের ধারনা রাকা বিশ্বের স্বাপ্নিকদের মাঝে এতোটাই ওতোপ্রতো ভাবে জড়িয়ে আছে যার কারনে রাকা ওয়ার্ল্ডের সবাইই সাইকোহিস্ট্রিয়ান হিসেবে পরিচিত কারন রাকায় নাগরিক কিংবা সিটিজেন বলতে কোন টার্ম ব্যবহার হয় না কিন্তু সবাই সাইকোহিস্ট্রিয়ান। 

যাইহোক, রাকায় পৌছানো এবং ডন আইজ্যাকের সাক্ষাত লাভ করা জিনার জন্য সহজতর ছিলো না। কারন রিপাবলিক দ্যুমায় রাকার কোন দুতাবাস কিংবা কমিশন অফিস নেই। উপরন্তু রাকা বিশ্বে এন্ট্রিপাস একমাত্র সংশ্লিষ্ট রিপাবলিকগুলির রাকা দুতাবাস কিংবা কমিশন হাউজ কিংবা প্রতিনিধি থেকেই সরাসরি অনুমোদন করা হয়ে থাকে যে আগ্রহী স্বাপ্নিক যে রিপাবলিকের নাগরিক- সেখান থেকেই। যেহেতু রিপাবলিক দ্যুমায় রাকার অফিসিয়াল কার্যক্রম নেই তাই এটা জিনার পক্ষে খুবই কঠিন হয়ে গিয়েছিলো রাকায় প্রবেশের এন্ট্রিপাস জোগাড় করতে। তখন সেলিব্রেটি জার্নাল অফিস থেকে জানানো হলে রিপাবলিক দ্যুমায় রাকা বিশ্বের তৈরী একটি মাইক্রোফুড প্রোডাক্টসের কিছু র'ম্যাটেরিয়ালস আমদানী করা হয়ে থাকে যার উতপাদন প্রক্রিয়া একমাত্র রাকাই জানে এবং এই মাইকক্রোফুড থেকে অর্জিত প্রতিটি অর্থ সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশনকে রক্ষা ও উন্নয়ন কার্যক্রমে ব্যায় করা হয় আর রাকা অনেক কঠোর, নিয়ন্ত্রিত এবং উতকৃষ্ট প্রক্রিয়ায় এর সর্বোচ্চ গুনগত মান বজায় রাখে। রাকা মাইক্রোফুডস নামে একটি কোম্পানীর এই প্রোডাক্টস্ সমস্ত ড্রিম ইউনিভার্সে রপ্তানী হয়ে থাকে। জিনা জানতে পারে রিপাবলিক দ্যুমায় রাকা মাইক্রোফুডসের ব্যুরো অফিস রাকা বিশ্বে প্রবেশের ছাড়পত্র দিতে পারে। জিনাকে প্রমান করতে হয়েছিলো সে সাইকোহিস্ট্রি স্কলার।

৭: 
ডন আইজ্যাক প্রকৃতপক্ষে সাইকোহিস্ট্রির কেউ ছিলেন না, তার একাডেমিক ব্যাকগ্রাউন্ড হচ্ছে ড্রিম এনভায়রনমেন্ট এন্ড ন্যাচারাল কেমিস্ট্রি এর উপরে কিন্তু তদসত্তেও তিনি সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশনের সদস্যই হননি বরঞ্চ এই ইউনাইটেড স্টেটসের প্রধান একজন লর্ড সাইকোহিস্ট্রিয়ান হতে সক্ষম হয়েছেন। যদিও রাকা অনেক আগেই একটি বিশ্ব হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরেও এর কোন রাজধানী তৈরী হয় নি। একটি বিরান অতি প্রাকৃতিক পরিবেশ স্থানকে টেরাফর্মিং করে তাকে স্বাপ্নিক সভ্যতার বসবাসের উপযোগি করে নতুন নগরী নির্মান ও রাজধানী তৈরীর প্রয়াসে একদল সাইকোহিস্ট্রিয়ান কার্যক্রম শুরু করে। কিন্তু পরিবেশ ও প্রাকৃতিক রসায়নে ডিগ্রিধারী ডন আইজ্যাক এর বিরোধিতা করে বসেন কারন ড্রিম ইউনিভার্স একটি অতি প্রাকূতিক বিশ্ব আর রাকা ওয়ার্ল্ড এর আলাদা নয়। কিন্তু পার্থিব বিশ্বের আদলে স্বপ্নবিশ্বে একটি নগরী নির্মানে প্রতিবাদ করে পুরো স্বপ্নবিশ্বে একটি আন্দোলন গড়ে তোলেন ডন আইজ্যাক। এভাবে তিনি সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশনের কাছে অনেক বেশী গুরুত্বপুর্ন হয়ে ওঠেন। তাকে স্বপ্ন বিশ্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার চেয়ে তার মেধা, জ্ঞান, যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ও সৃজনশীলতাকে সাইকোহিস্ট্রি ডেভলপমেন্টের জন্য চুয়াল্লিশতম টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে গ্রহন করে ইউনাইটেড স্টেটস। 
সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশনের রাজধানীর জন্য টেরাফর্মিং নগরী মার্শাল প্ল্যানের বিরুদ্ধে স্বপ্নবিশ্বজুড়ে ডন আইজ্যাক যে আন্দোলনটি গড়ে তুলেছিলেন তার নাম ছিলো আন্ডারওয়ার্ল্ড। আন্ডারওয়ার্ল্ড এতোই শক্তিশালী হয়ে উঠেছিলো যে সেটা সায়েন্টেফিক ও মেন্টাল ভাবে অতি শক্তিশালী রাকাওয়ার্ল্ডের অনেক শক্তিশালী প্রতিদ্বন্ধী হয়ে ওঠে। তাই অবশেষে আন্ডারওয়ার্ল্ডের সাথে এক ঐতিহাসিক চুক্তি সাইকোহিস্ট্রি ফার্স্ট এগ্রিমেন্ট সমঝোতায় আবদ্ধ হয় রাকা ওয়ার্ল্ড। এই চুক্তিতে—  
১. উভয়পক্ষ থেকে টেরাফর্মিং সিটি ফর ক্যাপিটাল অফ রাকাওয়ার্ল্ড নির্মানে একমত হয় উভয়পক্ষ। 
২. পার্থিব বিশ্বের নগরীর আদলে টেরাফর্মিং ক্যাপিটাল সিটি নির্মানে অতিপ্রাকৃতিক পরিবেশের ডেভিয়েশন ও বিলুপ্তি ঠেকানো যাবে না তবে সর্বোচ্চ যতটুকু সম্ভব অতিপ্রাকৃতিক পরিবেশ অক্ষুন্ন রাখা হবে। 
এভাবে ধীরে ধীরে রাকাওয়ার্ল্ড এবং আন্ডারওয়ার্ল্ড একে অপরের অতি শক্তিশালী প্রতিরক্ষা এবং সহযোগী হয়ে ওঠে। দেখা যায়, মর্ডান রাকাওয়ার্ল্ড তৈরীতে যে সংখ্যক আধুনিক মহানায়ককে রাকা বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় সিক্ত করেছে তাদের অধিকাংশ আন্ডারওয়ার্ল্ডের ডন। কারন আন্ডারওয়ার্ল্ডের সহযোগিতা ছাড়া আজকের সাইকোহিস্ট্রি স্টেটস ফেডারেশন এতো অধিক সফলতা লাভ করতে পারতো না। এই অবদান ডন আইজ্যাকের।

{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe 

Friday

Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ স্বপ্নবিশ্ব (৪ - ৫)


৪: 
ডিভাইন এলায়েন্স ইনবিল্ট ড্রিম ইউনিভার্স! সংক্ষেপে দ্যা ড্রিম ইউনিভার্স। তবে গবেষক ও স্কলারদের কাছে এই পুর্নাঙ্গ নামের একটুখানি ডেভিয়েশন আছে, ডিভাইন এলায়েন্স ইমপ্লাইড ড্রিম ইউনিভার্স। অফিসিয়াল নাম, ডিভাইন এলায়েন্স অফ ড্রিম ইউনিভার্স। স্বপ্নবিশ্বের আকর্ষনীয় ও সমৃদ্ধ সাহিত্য এবং ইতিহাস কর্মগুলি থেকে তথ্য পাওয়া যায় যে অনেক অতীতে একদা স্বপ্ন ও পার্থিব একটি বিশ্বই ছিলো। ভিন্ন ভিন্ন কোন নাম এবং অবস্থান ছিলো না। যা ছিলো স্বপ্ন সেটাই পার্থিব এবং যা ছিলো পার্থিব সেটাই স্বপ্ন। মহাজ্ঞানী ইরশ প্রোর্ড ছিলেন অন্যতম ও সেরা গবেষক ও দার্শনিকদের একজন। ইরশ দীর্ঘদিন গবেষনা করে দুটি লেয়ারের অস্তিত্ব খুজে পেয়েছেন, তিনি তার নাম দেন স্বপ্ন ও পার্থিব এবং এসব নিয়ে বিস্তর গবেষনা ও লেখালেখি এবং ক্যাম্পেইন করে দ্বিজাতি ত্বত্ত নামে একটি থিওরির অবতারনা করেন। ফলশ্রুতিতে হাজার যুগের দীর্ঘ ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ায় এই দুটি বিশ্ব পরস্পর থেকে সম্পুর্ন আলাদা হয়ে ভিন্ন ভিন্ন অবস্থানে চলে যায়। তবে একটি বিশ্ব যেন অপর বিশ্বের সাথে যোগাযোগ রাখতে পারে তিনি তেমন কিছু মেকানিজমেরও প্রস্তাবনা করে সেগুলিকে কার্যকরী করে তোলেন। আর সেসবের অন্যতম হচ্ছে অবসর, বিশ্রাম এবং জাগরন। স্বাপ্নিকরা অবসর কিংবা বিশ্রামকালীন সময়ে জাগরনের মাধ্যমে পার্থিব বিশ্ব ভ্রমন করে। 

জিনার উর্ধ্বতন এল আমিদ। জিনা তার সাথে কাজ করছে বেশ কয়েকমাস যাবত। জিনা তার কাছে জানতে চায় মনোজগত সম্পর্কে। হ্যা। এল আমিদ মনোজগতের অস্তিত্বের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। 
আচ্ছা আমিদ, আপনী কি আমাকে বলতে পারবেন কিভাবে মনোজগতে পৌছানো যাবে। কোথায় গেলে আর কিভাবে খুজে পাওয়া যাবে মনোজগত? জিনা অনেক আগ্রহ নিয়ে জানতে চায় তার উর্ধ্বতন এল আমিদের কাছে। 
এল আমিদ উত্তর দেয়, মনোজগতের কথা আমিও জেনেছি। মনোজগত নিয়ে অনেক পড়া, শোনা ও গবেষনা করেছি। কিন্তু এই মনোজগত এভাবে কেউ খুজে পেতে পারে না মাই ডিয়ার। কিংবা আমি নির্দিষ্ট করে বলতেও পারবোনা যে ঠিক কোথায় আছে মনোজগত। তবে মনোজগত নামে আরো একটি বিশ্ব আছে। 
অবসর, বিশ্রাম কিংবা জাগরনের মাধ্যমে কি মনোজগতে যাওয়া যায় মাননীয় এল আমিদ? অনেক শ্রদ্ধার স্বরে প্রশ্ন করে জিনা যেন তাকে যেভাবেই হোক মনোজগতের সন্ধান পেতে হবে। কারন সে অজানা কারনে বিশ্বাস করেছে যে সেখানে হয়তো সে তার জাগরনের নায়ক রিলেমকে স্থায়ীভাবে খুজে পাবে। 
এল আমিদ বলেন, অবসর, বিশ্রাম ও জাগরন এসবতো পার্থিব বিশ্ব ভ্রমনের উপায়। তবে মনোজগতে যাবারও একটি উপায় কিংবা মেকানিজমও নিশ্চয়ই আছে। 
উর্ধ্বতন এল আমিদের চেম্বারে দীর্ঘ সময় কাটায় জিনা। তার আরো বিশ্বাস হয়েছে, এল আমিদ তাকে মনোজগতে পৌছাতে সঠিক গাইডলাইন এবং পর্যাপ্ত সহযোগিতা ও পরামর্শ দিতে পারবে। 

৫: 
এল আমিদ চেম্বারে কমিউনিকেশন অফিসার হিসেবে জিনা অফিসিয়ালী যোগ দিয়েছে পাঁচ মাস আগে। স্বপ্নবিশ্বের রিপাবলিক দ্যুমাতে সর্বক্ষেত্রে প্রফেশনের কিছু স্থর আছে। জিনা একজন অফিসার, এল আমিদ হচ্ছেন ডিরেক্টর, তাছাড়া চেম্বারের একজন চেয়ারপার্সন আছেন এবং আরো আছে একাধিক এডভাইজার। জিনার সাথে এল আমিদ পরামর্শ করে চেম্বার ডেভলপমেন্টের বিষয়ে। তিনি ভাবছেন একজন কনসালটেন্ট এবং একজন কমিশনার নিয়োগ দেওয়ার বিষয়ে। এল আমিদ বলেন, তোমরা যারা প্রফেশনে নতুন যোগ দিয়েছো তাদের ভালভাবে কর্মক্ষেত্রগুলি বুঝতে হবে এবং পরিস্কার ধারনা থাকতে হবে আর এটা হচ্ছে একজন ভাল প্রফেশনাল হয়ে উঠবার প্রাথমিক ধাপ। 
এল আমিদ বললেন, শোনো মেয়ে, তোমার মতো নিউএন্ট্রি একজন অফিসারও এডভাইজার কিংবা কনসালটেন্ট হিসাবে কাজ করতে পারে তবে সেজন্য পার্টিক্যুলারলি বিষয় ভিত্তিক যথেষ্ট জ্ঞান ও দক্ষতা থাকতে হয়। এডমিন্সিট্রেটিভ, সেক্রেটারিয়েট কিংবা প্রকল্প ভিত্তিক কাজগুলিতে একজন কমিউনিকেশন অফিসারের অনেক গুরুত্ব রয়েছে। কোঅর্ডিনেশনের ক্ষেত্রে একজন কমিউনিকেশন অফিসার অনেক সফল ও ফলপ্রসু ভুমিকা রাখতে পারে। ড্রিম ইউনিভার্সে যারা মনোঐতিহাসিক সেক্টরে কাজ করে থাকে তাদের একটা ইউনাইটেড স্টেটেস আছে সাইকোহিস্ট্রি স্টেটেস ফেডারেশন। এল আমিদ চেম্বার সাইকোহিস্ট্রি নিয়ে কোন কাজ করে নি তবে তুমি চাইলে আমরা একজন সাইকোহিস্ট্রিয়ানকে এডভাইজার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে ঐ জাতীয় প্রকল্পে অন্তর্ভুক্তি নিয়ে তাদের ইউনাইটেড স্টেটেসটির সদস্য হতে পারি। 
জিনা প্রশ্ন করে সাইকোহিস্ট্রি কি মনোজগতের কোন অংশ? 
এল আমিদ বললেন, না, তবে এর মাধ্যমে তুমি হয়তো মনোজগতকে আরো ভালভাবে বুঝতে পারবে। যেমন ধরো গনিতের এমন কিছু শাখা কিংবা এমন কিছু গনিত আছে যার কর্মক্ষেত্রে কোন প্রয়োগ নেই কিন্তু ঐসব গনিত স্টাডি অন্য আরো কিছুকে বুঝতে ও গভীরে দৃষ্টিপাতে সহায়তা করে। সাইকোহিস্ট্রি হচ্ছে তেমন একটি মাধ্যম, প্রকল্প এবং ধারনা যা স্বপ্নবিশ্বকে আরো ভালভাবে বুঝতে ও পরিচালনা করতে সহায়তা করতে পারে। 

ডন আইজ্যাক! সাইকোহিস্ট্রিয়ান। সাইকোহিস্ট্রি স্টেটেস ফেডারেশনের লর্ড সাইকোহিস্ট্রিয়ান হিসেবে দায়িত্বরত আছেন অনেক বছর যাবত। কমিউনিকেশন চেয়ারপার্সন হিসেবে তিনি স্টেটেসে প্রথম যোগ দিয়েছিলেন। এল আমিদ চেম্বার কোন সাইকোহিস্ট্রি প্রকল্পে যোগ দেয় নি তবে জিনার সাক্ষাত হয় সাইকোহিস্ট্রি স্টেটেস ফেডারেশনের লর্ডের সাথে। সেলিব্রেটি জার্নাল এর সাংবাদিক হিসেবে জিনা সাক্ষাত করে ডন আইজ্যাকের সাথে। 

জিনা ক্ষুদে একটি সাক্ষাতকার নিতে সক্ষম হয়। তার কিছু গুরুত্বপুর্ন তথ্য এমন:-  
প্রশ্ন: সেলিব্রেটি জার্নালের কাছে তথ্য আছে যে সাইকোহিস্ট্রি একটি নিষিদ্ধ বিজ্ঞান? 
উত্তর: সাইকোহিস্ট্রি গনিতের একটি বিশেষ শাখা এবং সাইকোহিস্ট্রি নিজেই একটি বিজ্ঞান। সাইকোহিস্ট্রিকে বলা হয় এঞ্জেলিক সায়েন্স এবং এটা অনেক উচ্চমাত্রার একটি বিজ্ঞান যা এখনো সাধারন স্বাপ্নিকদের মাঝে পৌছায় নি। 
প্রশ্ন: তাহলে কেন আপনারা সাইকোহিস্ট্রিকে সাধারনদের জন্য উন্মুক্ত করছেন না? 
উত্তর: শুধু ড্রিম ইউনিভার্সের সাধারনদের মধ্যে নয় স্টেটেস চায় সাইকোহিস্ট্রিকে স্বপ্নবিশ্ব থেকে পার্থিব বিশ্বে নিয়ে যেতে, কমনওয়েলথে, এম্পায়ারে, কোহেকাফ নগরে এবং সর্বত্র। কিন্তু এই বিজ্ঞান এখনো ম্যাসিভ লেভেলে প্রবেশ করা কিংবা বোধগম্যের অবস্থায় পৌছায় নি। 
প্রশ্ন: তবে আপনাদের স্টেটেস কেন সাইকোহিস্ট্রিকে সবার বোধগম্য করে দিচ্ছে না? 
উত্তর: আমরা চেষ্টা করছি গতানুগতি গনিতের শাখাগুলির মধ্যদিয়ে সাইকোহিস্ট্রিকে প্রকাশ করবার যেন সবাই বুঝতে পারে। এবং সাইকোহিস্ট্রি সায়েন্সকে ক্লাসিক কিংবা কোয়ান্টাম পর্যায়ে নিয়ে আসতে যেন সবার কাছে বোধগম্য হয়ে ওঠে এবং তখন আমরা সাইকোহিস্ট্রিকে ড্রিম ইউনিভার্স থেকে অন্যসব ইউনিভার্সে প্রেরন করতে পারবো। 
প্রশ্ন: কিন্তু আমরা বুঝতে পারছি না আপনী কেন বারবার সাইকোহিস্ট্রিকে অন্যান্য বিশ্বে প্রেরনের কথা বলছেন এবং অগ্রারিকারমুলকভাবে গুরুত্ব দিচ্ছেন? 
উত্তর: কারন সাইকোহিস্ট্রি যখন অধিক সংখ্যক বিশ্বে ও সাধারনদের কাছে পৌছাবে তখন এটা নিয়ে স্টাডি ও গবেষনা এবং প্রকাশনার পরিমানও বাড়বে আর এভাবে আরো সমৃদ্ধ হয়ে উঠবে সাইকোহিস্ট্রি। 
প্রশ্ন: কিন্তু স্টেটেসের যেসব প্রকাশনা আছে তাতে শুধু আপনাদের গুনগান আর গল্প-ইতিহাসে ভরপুর কিন্তু প্রকৃত পক্ষে যেটা নিয়ে এতো আয়োজন এতো বড় ইউনাইটেড স্টেটেস -  সাইকোহিস্ট্রি স্টেটেস ফেডারেশন, সেই সাইকোহিস্ট্রি গনিত কিংবা বিজ্ঞানের কোন তথ্য কিংবা গনিত নেই! কেন? 
উত্তর: সাইকোহিস্ট্রি এখনো এমন পর্যায়ে পৌছায়নি যা কিছু সাধারনের বোধগম্য হতে পারে। সাইকোহিস্ট্রি ধারনা যতটুকুই বিস্তার লাভ করেছে তা শুধু স্বপ্নবিশ্বেই সীমাবদ্ধ রয়েছে এখনো। 

{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe