Wednesday

প্রশ্ন#০৮: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
“যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা”

মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।

 আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।

যুগান্তকারী প্রশ্ন #০৮
আপনার অনেক প্রভাব-প্রতিপত্তি থাকাটা কি ন্যায্যতা?

মেলিন্ডা: না। এটা মোটেও সুখকর নয় যে কোটি কোটি মানুষের সামান্য সম্পদ রয়েছে আর আমাদের এত অনেক পরিমানে ধন-সম্পদ আছে। এবং এটাও ন্যায্য নয় যে আমাদের সম্পদ ব্যবহার করে অধিকাংশ মানুষের জীবন-জীবিকার বন্ধ হওয়া দরজা খুলছে। বিশ্ব নেতাদের সাথে আমাদের ফোনে কথা হয় এবং আমরা কি বলছি তারা সেটা গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে থাকেন। ক্যাশ স্ট্রাপেড স্কুল ডিস্ট্রিকগুলি অর্থ এবং প্রতিভাকে এমন বিশ্বাসের উপরে ধারন করে যে আমরা সেইসব কিছুতে আর্থিক অনুদান করবো।

কিন্তু ফাউন্ডেশন হিসেবে আমাদের লক্ষ্যগুলি সম্পর্কে কিছুই গোপনীয় নেই। আমরা যা অর্থায়ন করছি এবং এসবের কি ফলাফল হয়েছে এইসব সম্পর্কে তথ্য-উপাত্তসমুহ উম্নুক্ত করতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। (কতটা সফল হয়েছে কিংবা হয় নি এগুলি সবসময় তাড়াতাড়ি বোঝা যায় না, কিন্তু আমরাদের কাজের প্রভাব মুল্যায়ন করতে, দিক-নির্দেশনা মেরামত করতে, প্রাপ্ত শিক্ষাগুলি ভাগাভাগি করতে আমরা কঠোর পরিশ্রম করি।) আমরা এইসব কাজ করে থাকি, সম্ভাব্য সকল উপায়ে মানুষকে সহযোগিতা করার জন্য এবং বিশ্বব্যাপি সাম্যতাকে এগিয়ে নিতে আমাদের যেখানে যা প্রভাব আছে আমরা সেসব ব্যবহার করি। যদিও আমরা কিছু সাফল্য পেয়েছি, তবে আমি মনে করি যে এই বিষয়ে তর্ক করা কঠিন হবে যে আমরা বিশ্বকে স্বাস্থ্য, শিক্ষা বা দারিদ্র্যের উপর গুরুত্ব দেওয়ার জন্য তৈরী করতে পেরেছি।

বিল গেটস: যতটা সম্ভব আমরা প্রতিক্রিয়াসমুহ উৎসাহিত করার চেষ্টা করি, আমরা জানি যে আমাদের কিছু সমালোচকরা কথা বলছেন না কারণ তারা হয়তো অর্থ হারানোর ঝুঁকি নিতে চায় না। এর মানে হল আমাদের ভাল নিয়োগ করা, বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া, ক্রমাগত শিখতে থাকা এবং বিভিন্ন মতামত খুঁজে বের করা প্রযোজন।

যদিও আমাদের ফাউন্ডেশন বিশ্বের সবচেয়ে বড়, তবুও সামগ্রিকভাবে ব্যবসাখাতে এবং সরকারীখাতে যতটা ব্যয় হয় সেই তুলনায় আমাদের অর্থ নিতান্তই কম। উদাহরণস্বরূপ, ক্যালিফোর্নিয়া স্টেটে-- পাবলিক স্কুলসমুহ পরিচালনা করবার জন্য এক বছরে যতটা অর্থ ব্যয় করা হয়ে থাকে সেই পরিমানের চেয়ে আমাদের সমস্ত অর্থায়ন নিতান্তই কম।

সুতরাং প্রতিশ্রুত উদ্ভাবনের পরীক্ষা-নীরিক্ষা করবার জন্য, তথ্য সংগ্রহ এবং বিশ্লেষণ করার জন্য, ব্যবসা-বানিজ্য ও সরকারকে উন্নিত করার জন্য, এবং সম্পাদিত কাজসমুহকে টেকসই করার জন্য আমরা অত্যন্ত নির্দিষ্ট ভাবে আমাদের সমস্ত সম্পদের ব্যবহার করি। এভাবে আমরা একটি ইনকিউবেটরের মতো। যেসব আইডিয়াগুলি পাবলিক পলিসিতে সংযুক্ত হয় সেসবের উন্নয়ন করা আমাদের লক্ষ্য, এবং যে সমস্ত ধারণাগুলির সর্বাধিক প্রভাব রয়েছে সেসবকে অর্থায়নের ছাঁচে নিয়ে আসা।

এই প্রশ্নের গভীরে আরেকটি সমস্যা আছে। যদি আমরা মনে করি থাকি যে আমাদের এতটা সম্পদ থাকা অন্যায়, তাহলে কেন আমরা সরকারকে তা দিয়ে দিচ্ছি না? এর উত্তর হল, আমরা মনে করি সবসময় ফাউন্ডেশনের একটি অনন্য ভূমিকা রয়েছে। কারন- বৈশ্বিক দৃষ্টিভঙ্গিতে সর্বাধিক প্রয়োজনসমুহ খুজে বের করা, সমস্যাসমুহ সমাধানের জন্য একটি দীর্ঘমেয়াদী পদ্ধতি গ্রহণ করা, এবং উচ্চ ঝুঁকির এমনকিছু প্রকল্প পরিচালনা করা যা সরকার ও কর্পোরেট কোম্পানীগুলিও গ্রহণ করতে পারে না –এই জাতীয় কাজগুলি নিতে পারে। কোন ব্যর্থ আইডিয়াতে সরকার যদি চেষ্টা করে তবে অনেকেই হয়তো তাতে কাজ করতে পারবেন না। যেখানে আমরা যদি এই জাতীয় ব্যর্থ আইডিয়াতে চেষ্টা না করি তবে তো আমরা আমাদের কাজটি সঠিকভাবে করছি না।

[চলবে…]

সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#08) Translated by Raych Hatashe. Question#01 | Question#02 | Question#03 | Question#04 | Question#05 | Question#06 | Question#07

Tuesday

প্রশ্ন#০৭: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
“যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা”
মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি। 
“বিল এন্ড ম্যালিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ২০১৭ সালে পূর্ব আফ্রিকার দেশ তানজানিয়া (United Republic of Tanzania) তে ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশী অর্থ ব্যয় করেছে” –BMGF (gatesfoundation.org)
আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।

যুগান্তকারী প্রশ্ন #০৭
আপনি কেন কর্পোরেশনগুলির সাথে কাজ করেন? 

মেলিন্ডা: আমরা গ্লাক্সোস্মিথ ক্লাইন-জিএসকে এবং জনসন অ্যান্ড জনসন এর মতো কোম্পানিগুলির সাথে কাজ করি কারণ তারা যা করতে পারে সেটা অন্য আর কেউ করতে পারে না।

দারিদ্র্য বিমোচন এবং রোগ-শোক মোকাবেলার জন্য নতুন নতুন ডায়াগনস্টিকস সিস্টেম, ওষুধ গবেষনা ও টিকা পদ্ধতির উন্নতিসমুহের উদাহরণ গ্রহন করুন। মৌলিক বিজ্ঞান তথা পণ্য উন্নয়নের কাজগুলি হয়ে থাকে গবেষণা কেন্দ্র এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে। কিন্তু লক্ষ্য যখন মৌলিক বিজ্ঞান তৈরি করা, গবেষনা লব্ধ প্রাপ্ত মৌলিক বিজ্ঞানকে পন্যে রুপান্তর করা – এইসবকিছুই জীবন রক্ষাকারী,  সেগুলি পরীক্ষা করা হয় এবং অনুমোদন দেওয়া হয়, এবং অত:পর সেইসব পণ্যগুলি উৎপাদন করা হয়, জৈবপ্রযুক্তি এবং ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীর প্রয়োজনীয় অধিকাংশ দক্ষতাই আছে। আমাদের সাথে যেসব পার্টনাররা কাজ করেন তাদের জন্য ফাউন্ডেশনের অর্থায়নের পর্যা প্ত পরিমানে ও সহনীয় মুল্যের মধ্যে রেখে পণ্যের উন্নয়ন করা জরুরী।

আদর্শগতভাবে, আমরা চাই যে কোম্পানিগুলি উন্নয়নশীল দেশের জনগনের চাহিদা পূরণের জন্য আরও সুযোগ খুঁজবে। যদি আমাদের লিমিটেড পার্টনারশীপ তাদেরকে নতুন বাজারে সম্ভাব্যতা দেখতে উৎসাহিত করে তবে আমরা এটিকে একটি বড় সাফল্য হিসেবে বিবেচনা করব।

বিল গেটস: আমরা মনে করি যে, বিশ্বের ধনী দেশগুলির জীবন ব্যবস্থার মতোই স্বাস্থ্যসেবা এবং কৃষিখাতে গরিব মানুষরাও যেন একই ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবে। এই উদ্ভাবনের বেশিরভাগই প্রাইভেট সেক্টর থেকে পাওয়া যায়। কিন্তু কোম্পানিগুলিকে তো তাদের বিনিয়োগের অর্থও ফেরৎ পেতে হবে, যার মানে সেইসব কোম্পানীগুলির সক্ষমতা আছে সেইসব সমস্যাগুলি নিয়ে কাজ করবার যা প্রধানত বিশ্বের দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে প্রভাবিত করে। আমরা এটিকে পরিবর্তন করার চেষ্টা করছি- দরিদ্রদের সমস্যাগুলি সম্পর্কে তাদের দক্ষতার উপর মনোযোগ কেন্দ্রীভূত করে কোম্পানিগুলিকে উৎসাহিত করার জন্য তাদেরকে আর্থিক ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনায় না এনেই অর্থায়নের চেষ্টা করছি।

এখন পর্যন্ত সেরা উদাহরণ দেখা যায় বিশ্ব স্বাস্থ্যের মধ্যে। দরিদ্র মানুষদের কিছু রোগের জন্য নতুন ধরনের টিকা এবং পর্যােপ্ত ওষুধ প্রয়োজন- যা ম্যালিন্ডা বলছেন যে, এই সেক্টরে ইতিমধ্যে বায়োটেক কোম্পানিগুলি অত্যান্ত ভাল করেছে। উদাহরণস্বরূপ, আমরা দুইটি প্রাথমিক পর্যাধয়ের কোম্পানীকে অর্থায়ন করছি যারা মেসেঞ্জার আরএনএ ব্যবহার করে আপনার শরীর কিভাবে তার নিজস্ব টিকা তৈরি করতে পারে সেই বিষয়ে আপনার শরীরকে শেখানোর উপায়গুলি নিয়ে কাজ করছে। এটি এইচআইভি এবং ম্যালেরিয়া-এর পাশাপাশি ফ্লু এবং এমনকি ক্যান্সারের ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করতে পারে।

দরিদ্র দেশের জনগণের কাছে ওষুধ এবং টিকাকে যথেষ্ট পরিমানে সাপ্লাই দেবার জন্য বেসরকারী সেক্টরের সাথে আমরা কাজ করছি। প্রায় এক ডজনেরও বেশীর একটি সংঘবদ্ধ ভয়াবহ রোগের অস্তিত্ব রয়েছে, যাদের সমষ্টিগতভাবে নেগলেটেড ট্রপিক্যাল ডিজিজেজ বলা হয়, এই রোগগুলি দেড়শত-কোটিরও বেশী মানুষকে আক্রমন করেছে। এই রোগগুলির বেশিরভাগই চিকিৎসা করা যায়, কিন্তু দরিদ্র দেশগুলির জন্য এই ঔষুধ ক্রয় করা অনেক ব্যায়সাপেক্ষ এবং সেটা জনগনের কাছে বিতরণ করাও খুব ব্যয়বহুল। কয়েক বছর আগে, আমরা জানতে পেরেছি যে বেশকিছু ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি প্রয়োজনীয় ওষুধ দান করছে। আমরা ধারণাটি পছন্দ করেছিলাম এবং অনেকগুলি কোম্পানীর আরো বড় একটি গ্রুপকে বিনামুল্যে ঔষুধ বিতরন করবার কাজে একত্রিত করতে সাহায্য করেছিলাম। ২০১৬সালে এই কোম্পানীগুলি ১৩০টি দেশে এক বিলিয়ন মানুষকে নেগলেটেড ট্রপিক্যাল ডিজিজেজ গ্রুপের অন্তত ১টি রোগের চিকিৎসা প্রদান করে। এবং কর্পোরেট কোম্পানীগুলির সাথে কাজ করবার কারন হচ্ছে, আমি আশাবাদী যে আগামী দশ বছরে আমরা এই নেগলেটেড ট্রপিক্যাল ডিজিজেজ গ্রুপের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক অসুখকে দুরীভুত করতে সক্ষম হবো।

কখনও কখনও আমরা প্রাইভেট সেক্টরকে এই ক্ষেত্রে আনবার জন্য অনেক জটিল-জটিল আর্থিক চুক্তি করে থাকি। উদাহরণস্বরূপ, দাতারা তাদের কোম্পানির জন্য ঝুঁকিসমুহগুলি পাশ কাটিয়ে যান যাতে করে তারা তাদের পণ্যের জন্য নির্দিষ্ট মূল্য পেতে পারেন কিংবা নির্দিষ্ট পরিমাণে বিক্রি করতে পারেন। আমরা এমনি একটি দাতা সংস্থা যারা নিউমোকোকাল রোগের টিকার সাপ্লাই বৃদ্ধিতে পণ্যের ন্যায্য মুল্য পাবার নিশ্চয়তা প্রদান করে, আর এই রোগটির কারনে প্রতিবছর প্রায় পাচঁ লক্ষ শিশু অকাল মৃত্যুবরন করে থাকে। ৫৭টি দেশের গরীব শিশুরা এখন থেকে এই টিকাটি গ্রহন করতে পারবে, তাতে করে ২০২০ সালের মধ্যে পনের লক্ষ জীবন রক্ষা পাবে। 

প্রাইভেট সেক্টরকে সাথে নিয়ে আমরা অন্যান্য খাতেও কাজ করছি, কিন্তু এই প্রচেষ্টার পাশাপাশি তেমনটা নেই। মোনসান্তো এগ্রিকালচার কোম্পানির মতো অনেক কোম্পানীই দরিদ্র দেশগুলিকে সাহায্য করবার জন্য বীজ উৎপাদন করছে যাতে সেই দেশগুলি আরো বেশী খাদ্য উৎপাদন করতে পারে এবং অর্থাপোর্জন করতে পারে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে মানিয়ে নিতে পারে - পুর্বে ম্যালিন্ডা যেমনটা বলেছিল। ভোদাফোনের মতো কিছু মোবাইল ফোন সেবাদানকারী কোম্পানীর সাথে আমরা কাজ করছি যেন দরিদ্র মানুষরা যেন তাদের ফোনের মাধ্যমে অর্থ বাচাতে পারে, অর্থ পরিশোধ করতে পারে, এবং অর্থ কর্জ করতে পারে। এই কাজটি প্রাথমিকভাবে কেনিয়াতে শুরু হয়েছিলো এবং বর্তমানে ইন্ডিয়াসহ অন্যান্য দেশে বিস্তার লাভ করছে। 

[চলবে…]

সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#07) Translated by Raych Hatashe. Question#01 | Question#02 | Question#03 | Question#04 | Question#05 | Question#06

Monday

প্রশ্ন#০৬: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
“যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা”
মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।
“বিভিন্ন স্থানে পরিভ্রমন করতে গিয়ে আমি ও ম্যালিন্ডা পৃথিবীজুড়ে প্রচুর পরিমানে পরিমানে অসুখ-বিসুখ আর মানুষের মাঝে অনেক দারিদ্রতা দেখতে পেয়েছি, সেই সাথে অনেক বড় বড় সমস্যাও – এই সবকিছুই সমাধান করা একান্ত প্রয়োজন – তবে আমরা মানবতার সেরাটাও কিন্তু দেখতে পেয়েছি” –বিল গেটস (http://gatesletter.com)
আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।


যুগান্তকারী প্রশ্ন#০৬
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পলিসি কীভাবে আপনার ফাউন্ডেশন’এর কাজকে প্রভাবিত করছে?

বিল গেটস: আমার এই পত্রে আমি যেসব বিষয়গুলি সংযুক্ত করেছি তার তুলনায় আমি বিগত বছরে  প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং তার পলিসি নিয়ে আরো বেশী জিজ্ঞাসার সম্মুখীন হয়েছি।

প্রশাসন এর নীতিসমুহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে আমাদের ফাউন্ডেশনের কাজকে প্রভাবিত করে। সবচেয়ে বাস্তবিক উদাহরণ হচ্ছে বৈদেশিক সাহায্য। কয়েক দশক ধরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিদেশের রোগ ও দারিদ্র্য মোকাবেলার কার‌্যক্রমে নেতৃত্ব দিচ্ছে। এই প্রচেষ্টা অগনিত জীবন বাচিয়েছে। মার্কিন চাকুরীর অসংখ্য ক্ষেত্রও তৈরী হয়েছে বিদেশীদের জন্য। সেইসব দারিদ্র্য দেশগুলোকে আরও স্থিতিশীল করা এবং মহামারী আকার ধারন করার পুর্বেই রোগ-শোককে মোকাবেলা করার মধ্য দিয়ে আমিরিকাকে আরো নিরাপদ করেছে। যতদিন অসুস্থ ও ক্ষুধার্থ মানুষ আছে ততদিন পৃথিবী মোটেই নিরাপদ জায়গা নয়।

রাষ্ট্রপতি ট্রাম্প বৈদেশিক সাহায্য কমিয়ে আনবার প্রস্তাব করেছেন। এই অর্থ বাজেটে ফিরিয়ে আনতে কংগ্রেস কাজ করেছে। কঠোর ও নমনীয়- উভয় ক্ষমতার মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যখন এর নেতৃত্ব দেয় তখন এটা আমাদের জন্য বেশ ভালই হয়।

আরও বিস্তৃতভাবে, ‘আমেরিকা ফার্ষ্ট’ এমন বিশ্বজগত দর্শন  সম্পর্কে আমি চিন্তা করি। এটার অর্থ এটা নয় যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের জনগনের প্রতি খেয়াল রাখবে না – এমনটা নয়। এখন প্রশ্ন হল যে, এটি কিভাবে ভাল চলতে পারে। আমার মতামত হল যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের সাথে যুক্ত হয়ে সময়ের প্রেক্ষাপটে এটি আমেরিকানসহ সকলের জন্য উপকার বয়ে এনেছে। এমনকি আমরা যদি সব কিছু পরিমাপ করে থাকি যে শুধু সরকার দ্বারা আমেরিকান নাগরিকরা কতটা সহযোগিতা পেয়েছে, তারপরেও বৈশ্বায়ন একটি স্মার্ট বিনিয়োগ হিসেবে প্রমানিত হবে।

আমরা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং তার টীমের সংঙ্গে দেখা করেছি, যেমন আমরা পুর্বেকার প্রশাসনের লোকজনের সাথে দেখা করেছিলাম। রিপাবলিকান এবং ডেমোক্র্যাট- সব প্রশাসনের সঙ্গেই আমাদের কিছু বিষয়ে ঐক্যমত এবং কিছু বিষয়ে মতানৈক্য হয়েছে। যদিও আমরা এই প্রশাসনের সাথে আগেকার অন্যান্যদের তুলনায় অনেক বেশি মতানৈক্য হয়েছে, তবে আমরা বিশ্বাস করি যে সম্ভব হলে একসঙ্গে কাজ করা আমাদের জন্য এখনও গুরুত্বপূর্ণ। আমরা তাদের সাথে আলোচনা অব্যাহত রেখেছি কারণ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যদি বিদেশে বিনিয়োগ কমিয়ে দেয় কিংবা বন্ধ করে দেয় তবে অন্যান্য দেশের বহু মানুষ মারা যাবে আর আমেরিকানরাও খুব একটা ভাল থাকবে না।

মেলিন্ডা: বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে দরিদ্র মানুষদের উপকার হয় এমন নীতিমালা প্রস্তুত করার জন্য আমাদের পক্ষে যতটা সম্ভব প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করতে হবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মক্ষেত্রে, আমাদের মধ্যে এমন ভিত গেড়ে বসে আছে যে আমরা মনে করি, একটি সফল ভবিষৎ পাবার জন্য কলেজের ডিগ্রি কিংবা পেশাগত সার্টিফিকেট একটি গুরুত্বপূর্ণ বাস্তবতা। সংক্ষেপে, কলেজ শিক্ষা সমস্ত আমিরিকানদের জন্য সমৃদ্ধির একটি পথ হতে হবে। ট্রাম্প প্রশাসন এর নেতৃত্ব, এবং সেই সাথে কংগ্রেসের এইসব বিষয়ে অনেক কিছুই করার আছে।

বিশেষ করে, স্বল্প আয়ের শিক্ষার্থীদের সাহায্যের জন্য স্টুডেন্ট এইড প্রকল্পগুলিকে আরও ভালভাবে কাজ করতে হবে। এই মুহূর্তে, দুই মিলিয়ন ছাত্র-ছাত্রী আছে যারা শিক্ষার্থীদের অর্থায়ন প্রকল্পের সাহায্য পাবার জন্য যোগ্য কিন্তু তবুও তারা এতে আবেদন করে না, কারণ আবেদনের এই প্রক্রিয়া অনেক বেশী জটিল। কেউকেউ ঋণগ্রস্হ হয়, সমস্যাগ্রস্হ হয়, এমনকি প্রকৃত অবস্হা আরো বেশী খারাপ, আর সর্বপরি অনেকেই আর কলেজ পর‌্যন্ত যায় না। আবেদন প্রক্রিয়া সহজীকরণের মাধ্যমে সরকার উদারভাবে শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা প্রকল্পগুলি নিশ্চয়ই চালিয়ে যাবে। লক্ষ লক্ষ তরুন আমেরিকানদের ভবিষ্যৎ এতে নিহিত আছে।

আমি বলতে চাই যে, আমি বিশ্বাস করি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে থাকা একজন মানুষের ডিউটি আমেরিকার মূল্যবোধের রোল মডেল হিসেবে বিশ্ব দরবারে ভূমিকা পালন করা। আমি আকাংখা পোষন করি যে আমাদের প্রেসিডেন্ট যখন কোন মানুষের সাথে, বিশেষ করে নারীদের সাথে কথা বলেন কিংবা কোন টুইট বার্তা প্রকাশ করেন তখন তিনি আরো ভালোভাবে সেটা করবেন। সমতা একটি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় নীতি। জাতি, ধর্ম, যৌন অভিযোজন, বা লিঙ্গ ভেদাভেদ নির্বিশেষে প্রতিটি ব্যক্তির প্রতি নিরপেক্ষতা প্রদর্শন করা আমাদের দেশের জাতীয় ঐক্যের নিহিত শক্তি। নিজস্ব বক্তব্য ও নীতির অনুসরন করেই সমস্ত আমেরিকানদের ক্ষমতায়ন করে প্রেসিডেন্টকে দায়িত্বপুর্ন উদাহরন স্থাপন করতে হবে।

[চলবে…]

সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#06) Translated by Raych Hatashe. Question#01 | Question#02 | Question#03 | Question#04 | Question#05

Sunday

প্রশ্ন#০৫: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
“যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা”

মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।

আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।


যুগান্তকারী প্রশ্ন#০৫ 
শিশুমৃত্যুর হার কমিয়ে শিশুদের জীবন বাচানোয় কি অধিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির ভুমিকা রাখছে কিনা?


মেলিন্ডা: আমরা প্রথম দিকে নিজেদেরকেই একই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেছিলাম। হ্যান্স রোজলিং, একজন উজ্জ্বল এবং অনুপ্রেরণাশীল পাবলিক হেলথ অ্যাডভোকেট যিনি গত বছর মারা গেছেন - এটি আপনাদের প্রশ্নের একটি সঠিক উত্তর। আমি আমাদের ২০১৪ সালের চিঠিতে এই সম্পর্কে বেশ লিখেছিলাম। কিন্তু এটি পুনরাবৃত্তি হতে থাকে, কারণ এটি বস্তুত প্রতারণামূলক। যখন অধিক পরিমান শিশুরা ৫ বছর বয়সে চলে যায়, এবং যখন মায়েরা সিদ্ধান্ত নিতে পারে যে বাচ্চা কখন এবং যদিবা তারা সন্তান ধারন করবেন কিনা, তখন জনসংখ্যার আকার নিশ্চয়ই এমনটা বাড়বে না। জনসংখ্যা বৃদ্ধি নিম্নমুখি হবে। পিতা-মাতারা যদি নিশ্চিত হতে পারেন যে তাদের সন্তানদের অকাল মৃত্যু হবে না এবং সন্তানরা তাদের জীবনের পুর্ন ও স্বাভাবিক বয়স সীমা পার করতে পারবে, তখন বাবা-মায়েরা নিশ্চয়ই কম সংখ্যায় সন্তান ধারন করবেন। বড় পরিবারগুলি তাদের পুত্র কিংবা মেয়ে হারানোর দুঃখজনক সম্ভাবনার প্রেক্ষিতে বীমা-নীতির পথে চলেন।

পৃথিবীর পুরো ইতিহাস জুড়ে আমরা এই প্যাটার্নটি দেখতে পাই। সারা বিশ্ব জুড়ে, যখন শিশুদের মধ্যে মৃত্যুহার কম হয়েছে, সেই সময়গুলিতে জন্মের হারগুলি লক্ষ্য করুন। ১৭০০ সালের শেষের দিকে ফ্রান্সে এমনটা ঘটেছিল। ১৮০০ সালের শেষের দিকে জার্মানিতে এমনটা হয়েছিলো। ১৯১০ সালে আর্জেন্টিনায়, ১৯৬০ সালে ব্রাজিলে, ১৯৮০ সালে বাংলাদেশে।

বিল গেটস: মেলিন্ডা প্যাটার্নে (Melinda 'Population Growth Control' Pattern) বর্ণিত পদ্ধতির আরেকটি সুবিধা রয়েছে- প্রথমত অধিক সংখ্যক শিশুরা বেঁচে থাকে; দ্বিতীয়ত, পরিবারগুলি কম সন্তান নেবার সিদ্ধান্ত নেয়- এতে করে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে পারে, অর্থনীতিবিদরা এটাকে “ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ট” বলে থাকেন। এটি এখানে কীভাবে কাজ করে।

যখন আরও বেশি সংখ্যক শিশুরা বেচে থাকবার জন্য জীবন পায়, তখন আপনারা আত্মীয়তার বন্ধনে যুক্ত অপেক্ষাকৃত বড়/লম্বা/বিস্তৃত একটি প্রজন্ম পাবেন। কিন্তু যখন, যখন পরিবারগুলি কম সন্তান নেবার সিদ্ধান্ত নেয়, তখন পরবর্তী প্রজন্মটি অনেক ছোট হয়ে থাকবে। অবশেষে, অর্থনৈতিকভাবে তুলনামূলকভাবে আরো মানুষের উৎপাদনশীল শ্রমশক্তির একটি দেশে পরিনত হয় -এবং তুলনামূলকভাবে সেখানে কম নির্ভরশীলরা (বৃদ্ধ অথবা তরুন) থেকে থাকে। বিশেষ করে বিভিন্ন দেশ যদি স্বাস্থ্য এবং শিক্ষা খাতে যথেষ্ট বিনিয়োগের মাধ্যমে সেটা গ্রহণ করে নেয়, তবে দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য এটি একটি রেসিপি (Bill 'Economic Growth' Recipe)।

সৌভাগ্যবশত, শিশু মৃত্যু সংখ্যা সম্ভবত নিম্নমুখি। শিশু স্বাস্থ্যে উদ্ভাবনের হার অসাধারণ, এবং পৃথিবী বেশিরভাগ ক্ষেত্রে হতাশাজনক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় অগ্রগতি অর্জন করতে শুরু করেছে। উদাহরণস্বরূপ, এখন আমরা জানি যে অর্ধেকের মতো শিশু মৃত্যুর জন্য অপুষ্টি অনেক একটি ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ, কিন্তু অপুষ্টির কারণ কী এবং এটিকে কীভাবে রোধ করা যায়- সে বিষয়ে এখনও অনেক উম্নুক্ত প্রশ্ন রয়েছে। মাইক্রোবিওম আমদের একটি প্রতিশ্রুত অধ্যায়নের বিষয় -মানব দেহের যেসব ব্যাক্টেরিয়া – শিশুদের পুষ্টির শোষণ করার ক্ষমতার এরা ভূমিকা পালন করে। আমরা পার্টনারদের সাথে এক সুতা বেধের সুক্ষ এমন একটি ডিভাইস ব্যবহার করে কাজে করছি যা শিশুগুলির নাকের ভিতরের অংশে গোটের ৩৬০ ডিগ্রিতে সুক্ষাতিসুক্ষ ছবি ধারন করতে সক্ষম । শীঘ্রই আমরা অনুমান করার পরিবর্তে কিভাবে শিশুর বেড়ে ওঠে সেইসব বিষয় বুঝতে পারবো।

মেলিন্ডা: শিশুদের জীবন রক্ষা করা হচ্ছে এইসব প্রক্রিয়ার নিজস্ব যুক্তি। এতে প্রত্যেকের জন্য জীবন উন্নত করার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু  শুধুমাত্র যদি সমস্ত নারীরা কন্ট্রাস্টেপটিভ গ্রহনের সুবিধা পায় তবে এই ডেমোগ্রাফিক ট্রানজিশন একটি যুক্তিসঙ্গত সময়ের মধ্যে ঘটতে পারে। ঠিক এখন, সেই সংখ্যাটা দুইশত মিলিয়ন এরও বেশি হয় নি। সেইসব মহিলাদের, তাদের সন্তানদের এবং তাদের সমাজের জন্য, আমরা অবশ্যই তাদের প্রয়োজনগুলি পূরণ করব- এবং এখনই আমাদের অবশ্যই তা করতে হবে। আমরা যদি এই অ্যাক্সেস তৈরী করতে অস্বীকার করতে থাকি, তাহলে আমরা তাদের আজীবন দারিদ্র্যতার জন্যও অভিসম্পাত করছি। কিন্তু আমরা যদি তাদের অ্যাক্সেস প্রদানের জন্য বিনিয়োগ করি তবে পরিবারগুলি তাদের দারিদ্র্য দুর করবার জন্য এটাকে লুফে নিবে এবং তাদের সন্তানদের জন্য একটি ভাল ভবিষ্যত গড়ে তুলতে এটি ব্যবহার করবে।

[চলবে…]

সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#05) Translated by Raych Hatashe. Question#01 | Question#02 | Question#03 | Question#04   

Saturday

প্রশ্ন#০৪: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং 
“যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা”

মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।

আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।


যুগান্তকারী প্রশ্ন #০৪
আপনি কি অন্যদের সংস্কৃতির উপর আপনার মূল্যবোধ চাপিয়ে দিচ্ছেন না তো?


বিল গেটস: একদিক থেকে আমি মনে করি উত্তরটি স্পষ্টত “ না”। ম্যালেরিয়া বা অপুষ্টিতে কোন শিশু মৃত্যুবরন করবে না - এমন ধারণা কেবল আমাদের মূল্যবোধ নয়। এটি মানবতার মূল্যবোধ। প্রতিটি সংস্কৃতির পিতা-মাতারাই চান তাদের সন্তানরা বেঁচে থাকুক এবং ফুটে উঠুক বিকশিত হয়ে। 

কখনও কখনও, যদিও, প্রশ্নকর্তার প্রশ্ন অনেক অনেক গভীর কোন সমস্যাকে উপস্থাপন করে দেয়। তবে এটা এমন কোন প্রশ্ন নয়, যে ব্যাপারে আমরা কিছু করতে পারি, আর কিভাবেই আমরা এটা করতে পারতাম! আমরা কি সত্যিই জনগণের চাহিদা বুঝতে পারি? আমরা কি এই পৃথ্বী-ভুমির মানুষের সাথে কাজ করে যাচ্ছি?

মেলিন্ডা: পূর্বের কিছু উন্নয়নমূলক প্রকল্প সম্পর্কে আমরা গভীরভাবে সচেতন, যেসব এমন কিছু লোকের দ্বারা পরিচালিত হয়েছিল যারা মনে করেছিল তারা যাদের সহযোগিতা করার জন্য প্রকল্পগুলি/কর্মসূচীসমুহ করছে সেইসব উপকারভোগী লোকদের চেয়ে প্রকল্পকারী নিজেরাই তাদের প্রয়োজন সম্পর্কে ভাল জানত। আমরা বেশ কিছু বছর ধরে সেইসব উপকারভোগী মানুষের দৃষ্টিভঙ্গিতে তাদের চাহিদাগুলি বোঝার এবং তাদের বক্তব্যগুলি শোনবার বিষয়ে শিখেছি, এবং এটা শুধু সম্মানজনক নয়  কিন্ত আরও বেশী কার্যকরী।

আমাদের বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এই নীতির সঙ্গে মানসিকভাবে পরিকল্পিত। যখন আমরা বলে থাকি "আমরা" একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে কাজ করি, তখন এমনটা বুঝায় না যে বিল কিংবা আমি অথবা ফাউন্ডেশন এর কর্মচারীরা দ্রুত ক্রমবর্ধমান শহরগুলিতে সিওয়য়েজ ব্যবস্থা স্থাপন করছে, নদী দখলের জন্য কার‌্যক্রম চালাচ্ছে, অথবা কৃষকদের তাদের ফসল উৎপাদনের পরিবর্তন ঘটাতে  প্রশিক্ষণ দিচ্ছে – এমনটা নয়। আমরা বোঝাতে চেয়েছি যে আমরা বিভিন্ন সংস্থাগুলিকে বছরের পর বছর ধরে এবং কখনও কখনও কয়েক দশক ধরে যারা স্থানীয়ভাবে অভিজ্ঞ তাদের অর্থ অনুদান করে থাকি। এই সংগঠনগুলি, আমাদের হাজার হাজার সহযোগী এবং আমরা যাদের আমরা সাহায্য করার চেষ্টা করছি তাদের সাথে আমাদের কার্যকরীভাবে সক্রিয় যোগাযোগ স্থাপন করে দেয়।

চারটি মহাদেশের বিভিন্ন দপ্তরগুলিতে আমাদের প্রায় ১,৫০০ কর্মচারী রয়েছে যারা তথ্য-উপাত্তের দিকে নজর রাখে, সম্ভাব্য পন্থায় মহাবিশ্বকে অবলোকন করে, কার্যকরীতা ও অকার্যকরীতার বিষয়ে শিখে থাকে এবং কৌশলপত্রগুলি তৈরী করে থাকে – আমরা বিশ্বাস করি এইসব আমাদের কাজের প্রভাবকে বৃদ্ধি করে দেয়। কিন্তু তাদের চাকরির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলির মধ্যে একটি হচ্ছে, আমাদের সহযোগী ও অংশীদারদের কথা শোনা, তারা যা শোনে তার উপর ভিত্তি করে কৌশলগুলি সামঞ্জস্য করা, এবং তাদের দক্ষতা ও তাদের স্থানীয় জ্ঞান ব্যবহার করে প্রকল্প/কর্মসুচী বাস্তবায়নকারীদের সুযোগ প্রদান করা। তবে এর অর্থ এটা নয় যে আমরা সবসময় ঠিক কাজটিই করছি। আমরা করছি না। কিন্তু যেইসব বিষয়ে আমরা জানি না ও আমাদের ভুলগুলি থেকে শেখার মানসিকতায় আর মানবিকতার দৃষ্টিকোন থেকে আমরা এইসব কাজগুলি করবার চেষ্টা করে থাকি।

স্থানীয় অংশীদার ও সহযোগীদের উপর নির্ভরশীলতাকে প্রাধান্য দিয়ে, ক্ষমতায়নের গুরুত্ব সম্পর্কে আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস রয়েছে। আমরা কাউকে পছন্দ করার বা কোন কিছু পছন্দ করাবার বিষয়ে মোটেই আগ্রহী নই। আমরা পরিবার পরিকল্পনায় বিনিয়োগ করি, উদাহরণস্বরূপ, অন্য মানুষদের পরিবার কিংবা পারিবারিক কাঠামো কেমন হওয়া উচিত আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি এমনটা নয়, তবে সারা পৃথিবীর বিভিন্নস্থানের বাবা-মায়েরা আমাদের বলেছে যে, তারা তাদের নিজের নিজের পরিবারে স্বপ্ন দেখতে চান। আমাদের সমস্ত কাজের মধ্যে আমরা মানুষদের তাদের নিজেদের জন্য সর্বোত্তম পছন্দ বেছে নেবার জন্য প্রয়োজনীয় জ্ঞান ও ক্ষমতায়ন করার ব্যাপারে ব্যাপকভাবে আগ্রহী।

[চলবে…]


সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#04) Translated by Raych Hatashe. Question#01 | Question#02 | Question#03   

Friday

প্রশ্ন#০৩: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
“যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা”

মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।
আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।
   
সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।


যুগান্তকারী প্রশ্ন #০৩
জলবায়ুর পরিবর্তন ঠেকানোর জন্য আপনী বিনিয়োগ করছেন না কেন?

বিল গেটস: আমরা করি! এই ধরনের কাজে কিছু ক্ষেত্রে আমাদের বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন জড়িত আর কিছু আছে আমাদের ব্যাক্তিগত বিনিয়োগ।

ব্যক্তিগতভাবে, এই জাতীয় সেক্টর সংশ্লিষ্টতায় আমরা এমন উদ্ভাবনী কাজে বিনিয়োগ করে থাকি যা গ্রীনহাউজ গ্যাসের অংশভাগ থেকে হ্রাস করা হবে (যেমন, জলবায়ু-পরিবর্তন প্রশমন)। বিশ্বের এখন প্রয়োজন নির্ভরযোগ্য, সাশ্রয়ী মূল্যের বিশুদ্ধ শক্তি/জ্বালানীর নতুন উৎস, কিন্তু নাটকীয়ভাবে এই বিষয়গুলি অনুদানের অধীনে আছে যেখানে এসব গবেষণাগুলি নতুন শক্তি উৎস খুজে পাবার জন্য একাধিক ব্রেকথ্রু হতে পারে।

এইসব অনুদানের বৈসাদৃশ্য সমস্যাগুলি থেকে ভিন্নতর যেসব নিয়ে আমাদের ফাউন্ডেশন সাধারনত কাজ করে থাকে। ফিলানথ্রপিতে আমরা সমস্যাসমুহ খুজে বের করবার চেষ্টা করি যা সাধারনত বাজার-চাহিদা কিংবা সরকারের দ্বারা সমাধান করা সম্ভবপর হয়ে ওঠে নি। নির্মল-জ্বালানী সমস্যার সমাধান উভয় মিলেই করতে পারে, সরকার করতে পারে গবেষনা ভিত্তিক অনুদানের মাধ্যমে, গ্রীন-হাউস গ্যাস নির্গমন কমানোর জন্য ইনসেনটিভ দিয়ে, এবং ধৈর্যশীল বিনিয়োগকারীদের যাদের কোম্পানী বাজারের বিক্রয়যোগ্য পন্যের উপরে গবেষনা করে থাকে এবং গবেষনাকে বিপণনযোগ্য পন্যে হিসেবে তৈরী করে থাকে। সুতরাং এইসব কারনে এইসব বিষয়ে আমার ফাউন্ডেশনের চেয়ে আমি নিজেই ব্যাক্তিগতভাবে বেশী কাজ করে থাকি।

গত দুই বছরে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। ২৩টি দেশ ২০২০ সালের মধ্যে নির্মল-জ্বালানী গবেষণায় তাদের বিনিয়োগ দ্বিগুণ করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে। “ব্রেকথ্রু এনার্জি ভেঞ্চারস’ – বিইভি” নামে একটি প্রাইভেট বিনিয়োগের তহবিলের সাথে আমি জড়িত যেখানে বিভিন্ন ধরনের বিনিয়োগকারীদের এক বিলিয়ন মার্কিন ডলারের তহবিল আছে এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে অনেক কোম্পানীকে অনুদান দেয়া হবে (যেমন, গ্রিড-স্কেল স্টোরেজ এবং জিওথার্মাল পাওয়ার) যারা উদ্ভাবনী কাজের জন্য সত্যিকার অর্থে উপযুক্ত। সরকারের সাথে যোগসুত্র স্থাপনের জন্য আমাদের ব্রেকথ্রু এনার্জি ভেঞ্চারস – বিইভি নির্মল-জ্বালানী বিনিয়োগকারীদের একটি জোটের সাথে কাজ করবে। ক্লীন-এনার্জিতে পাবলিক ও প্রাইভেট খাতে ব্যয়কারীদের মাঝে কোন সমন্বয় নেই, আর এটা একটি কারন যে কিছু আশাপ্রদ প্রযুক্তি এখনো বাজার ধরতে পারে নি। আমরা এই বৈসাদৃশ্যের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরী করতে চাই।

মেলিন্ডা: এমনকি প্রযুক্তির পরিবর্তনের হাওয়াও পরিবর্তন থেকে বিরত রাখতে পারে না। তাই বিশ্বে এখন যা ঘটছে তা মানিয়ে নিতে হবে এবং আমরা যা জানি তা আসছে। এই কারনেই আমাদের বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন কাজ করছে। বিশেষত, সারা বিশ্বের কৃষি ব্যবস্থাপনাসমুহ জলবায়ু বিষয়গুলির উপর ক্রমবর্ধমানভাবে অধিশ্রয় করছে।

উন্নয়নশীল দেশগুলির লক্ষ লক্ষ মানুষ তাদের জীবন-জীবিকার জন্য চাষাবাদের উপর নির্ভর করে। জলবায়ু পরিবর্তনের ঘটনায় এইসব মানুষগুলি প্রায় কিছুই করতে পারে না, কিন্তু তারাই এর থেকে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়। যখন চরম আবহাওয়া তাদের ফসল ধ্বংস করে দেয়, তখন সেই বছর তাদের খাবার খাদ্য থাকে না। স্বাস্থ্যসেবা এবং স্কুলের বেতন মেটানোর মত মৌলিক প্রয়োজনীয়তায় ব্যয় করবার জন্যও তাদের কোন আয় হবে না। ছোটখাট কৃষকদের জন্য, জলবায়ু পরিবর্তন কেবল একটি বৈশ্বিক অশুভ প্রবণতা নয়, বরঞ্চ এটি একটি দৈনিক জরুরী অবস্থা।

কিন্তু কেবল উদ্ভাবনের ফলে জলবায়ু পরিবর্তন সীমিত হতে পারে, এটি জনগনকে জলবায়ু পরিবর্তন  মোকাবেলা করতেও সহায়তা করে। আমরা কৃষকদের আরো উৎপাদনশীল করতে সাহায্য করার জন্য বিনিয়োগ করে থাকি, যাতে তারা আরো সেকেলে থাকে আর তারা যেন নিষ্ফলা বছরগুলিকে মোকাবেলা করতে পারে। আমরা স্মার্ট-জলবায়ু ফসলে বিনিয়োগ করি যা চরম তাপ এবং ঠান্ডা, খরা ও বন্যা, এবং রোগ ও কীটপতঙ্গ সংক্রমনের মাঝে উৎপাদন ক্ষমতায় সার্বিকভাবে কম সমর্থ । উদাহরণস্বরূপ, বিভিন্ন ধরনের ধান-চাল উৎপাদন উন্নয়নের জন্য চীনা কৃষি বিজ্ঞান একাডেমীকে নিয়ে আমরা চাষিদের সাথে অংশীদারিত্বমুলক কাজ করছি যেগুলির খরা সহ্য করার ক্ষমতা আছে, আর পরিমানে কম সার, কম ওষুধ এবং কম কীটনাশক প্রয়োজন হয়।

আর এই "গ্রীন সুপার রাইস" এর মত উদ্ভাবনী দারিদ্র্যতার বিরুদ্ধে লড়াই করার এবং ভবিষ্যতে কয়েক দশক বিশ্বের খাদ্য চাহিদা পুরনের চাবিকাঠি হতে পারে।

[চলবে…]

সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#03) Translated by Raych Hatashe. Question#01 | Question#02

Thursday

প্রশ্ন#০২: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
"যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা"

মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।
আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।


যুগান্তকারী প্রশ্ন #০২
আপনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষা ব্যবস্থায় যে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছেন তাতে কি ফলাফল রয়েছে?


বিল গেটস : অনেক, কিন্তু যতটা না আমরা চাই সেটাই আমরা চাই।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আমাদের কাজে শিক্ষাকে ফোকাস করেছি কারণ এটা একটি সমৃদ্ধ দেশের, ব্যক্তির এবং  ভবিষ্যতের জন্য চাবিকাঠি। যদিও গত এক দশকে কিছু অগ্রগতি হয়েছে, কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে এখনও আমেরিকার অনেক পাবলিক স্কুল গুরুত্বপূর্ণ মেট্রিক পদ্ধতিতে খারাপভাবে পতিত হয়েছে, বিশেষ করে কলেজ জীবনের শিক্ষা। এবং এই পরিসংখ্যান দুর্বল ছাত্রদের জন্য আরও খারাপ হয়েছে।

আমরা প্রাথমিক শিক্ষা এবং পোস্টসেকেন্ডারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমর্থন করি, কিন্তু আমরা হাই স্কুলগুলির সাথে কার‌্যক্রম শুরু করেছি, এবং এখন পয্যন্ত মোটামুটি এগুলিই সবকিছু যেখানে আমরা সর্বাধিক বিনিয়োগ করে থাকি। আমরা প্রচুর পরিমানে শিখতে পেরেছি যে শিক্ষায় কি কি কাজ করে, অনেক, কিন্তু আমাদের সাফল্যসমুহ সেইসব চ্যালেঞ্জকে ব্যাপকভাবে প্রতিলিপি করেছে।

২০০০ সালের প্রথম দিকে, আমাদের বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এমন একটি সংস্থা হিসেবে কাজ করেছে যে আমরা হাই স্কুল গ্রাজ্যুয়েশনের হারের উপরে মনোযোগ দিয়েছিলাম।সেখানে প্রতিবেদনে তথ্য উঠে এসেছিলো যে হাই স্কুল গ্রাজ্যুয়েশনে শিক্ষার্থীদের হার ছিলো ৯০%, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এই হারটা ছিলো ৭০% এরও কম, অর্থাৎ প্রায় এক তৃতীয়াংশ শিক্ষার্থী ড্রপিং আউট হচ্ছিল। সুতরাং সত্যিকারে স্কুল গ্রাজ্যুয়েশনে শিক্ষার্থীদের হার চিহ্নিত করবার জন্য আমরা গবেষনায় আর্থিক বরাদ্দ অনুদান করেছিলাম এবং সর্বসম্মতিক্রমে এই তথ্যকে ব্যবহার করবার জন্য একটি কোয়ালিশন অফ স্টেটস তৈরী করতে সাহায্য করেছিলাম।

গ্রাজ্যুয়েশনে শিক্ষার্থীদের হার বাড়ানোর জন্য আমরা শত শত নতুন মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলিকে সাহায্য করেছিলাম।

তাদের অনেকেই ভাল ফলাফল অর্জন করেছে এবং গ্রাজ্যুয়েশনের হার আগের খারাপ অবস্থাকে প্রতিস্থাপন করেছে। প্রাথমিক পর্যায়ে, খারাপ অবস্থায় থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিকে আরও উন্নততর রূপে রূপান্তর করার প্রচেষ্টাকে আমরা সহযোগিতা করেছিলাম। এটা ছিলো শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর জন্য সবচেয়ে যুগান্তকারী একটি চ্যালেঞ্জ। আমরা শিখেছি যে, খারাপ অবস্থায় থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিকে আরও উন্নততর রূপে রূপান্তর করাটাই ছিলো সবচেয়ে কঠোরতম কাজ; সামগ্রিকভাবে তারা নতুন নতুন তৈরি স্কুল হিসাবেও কাজ করে নি। কীভাবে একটি বিদ্যালয়কে অত্যন্ত কার্যকরী করে তোলা যায়, সে সম্পর্কে আরও শিখতে ও জানতে আমরা এজ্যুকেশন সেক্টরকে সাহায্য করেছি। দৃঢ় নেতৃত্ব, প্রমাণিত শিক্ষামূলক অনুশীলন, একটি সুস্থ স্কুলের সংস্কৃতি, এবং উচ্চ প্রত্যাশা এইসবই হচ্ছে চালিকা শক্তি।

শিক্ষার মান উন্নত করতে তাদের সাহায্য করার জন্য সারা দেশে জেলা পয্যায়ে আমরা একসাথে কাজ করেছি। এই প্রচেষ্টা শিক্ষাবিদদের বুঝতে সাহায্য করেছে যে, কিভাবে শিক্ষকদের অবলোকন করতে হয়, কিভাবে  তাদের কর্মক্ষমতা পরিমাপ করতে হয়, এবং তাদের কাজ অনুযায়ী কিভাবে তাদের কাজের প্রতিক্রিয়া দিতে হয়। কিন্তু তখনো আমরা প্রত্যাশিত বড় কোন প্রভাব দেখিনি যা আমরা আশা করেছিলাম। কোনও নতুন পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আপনার তিনটি জিনিস দরকার। প্রথমত, আপনাকে একটি পাইলট প্রকল্প চালাতে হবে যেখানে পরিকল্পিত পদ্ধতিটি কাজ করেছে। দ্বিতীয়ত, কাজটি নিজেই নিজেকে টেকসই হিসেবে তৈরী করতে পেরেছে। তৃতীয়ত, এই পদ্ধতিটি অন্যান্য স্থানে ছড়িয়ে পড়েছে।

এই তিনটি পরীক্ষার মাধ্যমে কার্যকারিভাবে আমাদের শিক্ষক কিভাবে কাজ করেন? শিক্ষার্থীদের শিক্ষার উপর এর প্রভাব মিশ্রিত ছিল, কারণ পাইলট প্রকল্পের প্রতিক্রিয়া ব্যবস্থাগুলি প্রতিটি স্থানে পৃথকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছিল। নতুন সিস্টেমগুলি কয়েকটি স্থানে সংরক্ষিত ছিল – যেমন, মেমফিস - কিন্তু অন্য স্থানে নয়। যদিও বেশিরভাগ শিক্ষাবিদগন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সম্মত হন যে শিক্ষকরা আরো বেশি উপকারী প্রতিক্রিয়া জানাতে পারতেন, এবং অনেক জেলায় এটি সরবরাহ করার জন্য প্রয়োজনীয় বিনিয়োগ এবং পদ্ধতিগত পরিবর্তনের সৃষ্টি করে নি।

ব্যাপকভাবে গৃহীত হওয়ার জন্য, একটি ধারণা বিভিন্ন ধরনের সেটিংসের স্কুলগুলিতে জন্য কাজ করে: শহুরে এবং গ্রামীণ, উচ্চ আয় ও নিম্ন আয়ের এবং আরও অনেক কিছু। আমিরিকার এর স্কুলগুলির স্থিতাবস্থা অতিক্রম করতে হয়েছে, নকশা দ্বারা, কিন্তু টপ-ডাউন সিস্টেম নয়। উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন করতে, আপনাকে স্টেট গভর্নমেন্ট, স্থানীয় স্কুল বোর্ড, প্রশাসক, শিক্ষক ও অভিভাবকসহ সাথে অনেক ডিসিশন মেকারদের মধ্যে একমত গড়ে তুলতে হবে।
 
মেলিন্ডা: আমরা সম্প্রতি আমাদের শিক্ষার কাজে কিছু পরিবর্তন ঘোষণা করেছি যেখানে আমাদের অভিজ্ঞতাসুত্রে প্রাপ্ত শিক্ষাগুলিকে বিবেচনায় আনা হয়। শিক্ষাবিদরা আমাদের যেমনটা বলেছিল, শিক্ষার সেই সবকিছু আমরা এমন একটি ধারণা হিসাবে শুরু করি। তারাই সেই মানুষরা যারা এই কাজকে জীবন্ত করে তুলেছিল এবং এই কাজকে শ্বাস নেবার জন্য উপযুক্ত করে তুলেছিলো, ফেইল করা শিক্ষার্থীদের বিশেষ করে সংখ্যা লঘু শিক্ষার্থীদের এই সিস্টেমকে উন্নত করবার জন্য সেইসব শিক্ষাবিদরা তাদের পেশা ও কাজে নিবেদিত ছিলো। যারা আজ অনেক ছাত্র ব্যর্থ হয় বিশেষ করে সংখ্যালঘু ছাত্রদের সিস্টেমের উন্নতির জন্য তাদের কেরিয়ার নিবেদিত হয়েছে।

আমাদের নতুন কৌশল স্পষ্টভাবে সত্য। শিক্ষার্থীদের সফলতার জন্য আমরা সারা দেশের মিডল স্কুল ও হাই স্কুলগুলির নেটওয়ার্কগুলির সাথে কাজ করবো যাতে করে তারা তাদের বাধাগুলি দূর করার জন্য তাদের নিজস্ব কৌশলগুলি বিকাশ ও বাস্তবায়ন করতে পারে। এই নেটওয়ার্কে এমন প্রক্রিয়ার আমরা কাজ করব: শিক্ষার্থীদের সাফল্যের মূল সূচকগুলিকে ব্যবহার করা যেমন ক্রমাগত শিক্ষণ এবং উন্নতি অব্যাহত রাখার জন্য গ্রেড এবং উপস্থিতি তথ্যগুলিকে ব্যবহার করা। কিন্তু তারা যে পরিবর্তনগুলি তৈরি করে সেসব স্থানীয় নেতাদের এবং উপলব্ধ প্রমাণগুলি কীভাবে কার্যকর হবে তার উপর নির্ভর করে।

স্কুলগুলির কিছু নেটওয়ার্ক দৃষ্টি নিবদ্ধ করবে আমাদের বহু অভিজ্ঞতার দৃষ্টিভঙ্গির উপর যেমন; শক্তিশালী শিক্ষা কারিকুলাম এবং শিক্ষক মতামত সিস্টেম। অন্যরা আমাদের জন্য নতুন কিছু খুজবে, যেমন মিডল স্কুল থেকে হাই স্কুল এবং হাই স্কুল থেকে কলেজ পর‌্যায়ে নির্দেশক প্রোগ্রামগুলির কঠোর পরিবর্তনগুলিকে সহজতর করা।

আমাদের ভূমিকা স্কুলগুলিকে তাদের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে, তথ্য বিশ্লেষন করতে, এবং বিভিন্ন সময়ে তারা যা শিখেছে তার সাথে মানিয়ে নেওয়ার কাজে সহযোগিতা করবে।

[চলবে…]

সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#02) Translated by Raych Hatashe.  Question#01

Wednesday

প্রশ্ন#০১: বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং, যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস এর বার্ষিক পত্র ২০১৮ ইং
"যুগান্তকারী ১০টি প্রশ্নের সম্মুখিন আমরা"

মুল: বিল গেটস এবং মেলিন্ডা গেটস। বাংলায় অনুবাদ: রাঈখ হাতাশি।

আমরা আমাদের আশাবাদ সম্পর্কে স্পষ্টভাষী। আজ এই দিন – যদিও - আশাবাদ সংক্ষিপ্ত সরবরাহই মনে হচ্ছে।

সংবাদের শিরোনামগুলি হয় ভয়াবহ রাজনৈতিক বিভাজন, সহিংসতা, বা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ভরা যেসব প্রতিদিন এক একটি ভিন্ন গল্প নিয়ে আসে আমাদের সামনে।

এসব শিরোনাম সত্ত্বেও, আমরা একটি ভাল পৃথিবী দেখতে পাচ্ছি।

এক দশক বা এক শতক আগের বিষয়গুলি আজকের তুলনায় তুলনা করুন। পৃথিবী আগের চেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত এবং নিরাপদ। ১৯৯০ সাল থেকে প্রতিবছর শিশু মৃত্যুর হার অর্ধেকের মধ্যে নামানো হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে শিশু মৃত্যুর হার আরো কমছে। মাতৃমৃত্যুর সংখ্যাও নাটকীয়ভাবে কমেছে। মাত্র ২০ বছরে প্রায় অর্ধেক পরিমান দারিদ্র্য হ্রাস পেয়েছে। আগের চেয়ে আরো অধিক পরিমান শিশুরা স্কুলে যোগ দিচ্ছে। প্রতিনিয়ত আরো অধিক সংখ্যক শিশুদের স্কুলে যাবার পরিমান একটি চলমান প্রক্রিয়া।

কিন্তু আশাবাদী হওয়ার মানে এটা নয় আমাদের জীবন আরও খারাপ হতে পারে। বরঞ্চ আশাবাদী হওয়া মানে কিভাবে আমাদের জীবন-যাত্রা আরো ভালভাবে চলতে পারে সে সম্পর্কে জানা।  এবং এসবই আমাদের আশাবাদের চালিকা শক্তি। যদিও আমরা আমাদের কাজের মধ্যে অনেক রোগ ও দারিদ্র্য দেখতে পাই- এবং অন্যান্য অনেক বড় সমস্যা আছে যা সমাধান করা দরকার- আমরা মানবতার সেরাটিও দেখতে পারি। অসুখের নিরাময় করার জন্য বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমরা শিখছি। সরকার কতৃপক্ষের সাথে আমরা কথা বলেছি যারা নিবেদিত এবং স্বাস্থ্য সেবা এবং বিশ্বের জনগনের জন্য কল্যানমুলক কায্যক্রমকে তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সারা বিশ্ব জুড়ে অনেক সাহসী এবং মেধাবী ব্যক্তিদের সাথে আমরা দেখা করেছি যারা তাদের সমাজকে নতুন উপায়ে রুপান্তরের জন্য চিন্তা-ভাবনা করতে পারেন।

যখন মানুষ জিজ্ঞাসা করে, "কিভাবে আপনি এত আশাবাদী হতে পারেন?" এটি একটি প্রশ্ন যে আমরা বারবার পেয়েছি, এবং আমরা মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হতে পারে কিভাবে আমরা বিশ্বকে দেখি।

এটা আমাদের ১০ম বার্ষিক পত্র। তাই ১০টি যুগান্তকারী প্রশ্রের উত্তর দেবার জন্য আমরা একটি উপলক্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। আমরা তাদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছি, এবং আমরা আশা করি যে আপনি যখন পড়া শেষ করবেন, তখন আপনীও আমাদের মতই আশাবাদী হবেন।

যুগান্তকারী প্রশ্ন #০১
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য আপনি কেন আরো অধিক কিছু করতে পারেন না?

মেলিন্ডা: আমাদের ফাউন্ডেশন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বছরে প্রায় ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে, এটির বেশিরভাগ শিক্ষার উপর। এটা অনেক, কিন্তু এটি প্রায় ৪ মার্কিন বিলিয়ন ডলারের কম যা আমরা উন্নয়নশীল দেশগুলির সাহায্য করতে ব্যয় করি।

আমরা বিভিন্ন মানুষের কষ্টের তুলনা করি না। সমস্ত দুর্ভোগ ও দু:খভোগের একটি ভয়ঙ্কর ট্রাজেডি হয়। তবে, আমরা বিভিন্ন ধরনের দুঃখকষ্টের প্রতিরোধ করতে আমাদের দক্ষতার মূল্যায়ন করি। যখন আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য অবস্থা নিয়ে অধ্যয়ন করেছি, আমরা বুঝতে পারি যে আমাদের সম্পদের একটি অস্পষ্ট ও অসমজ্ঞ্জস প্রভাব থাকতে পারে। আমরা জানতাম আমরা আক্ষরিক অর্থেই লক্ষ লক্ষ জীবন রক্ষা করতে পারি। তাই আমরা তেমনটা করতে চেষ্টা করেছি।

টিকা নিন। আমরা মনে করেছিলাম যে, মাত্র কয়েক পয়সায় কিংবা নাম মাত্র সামান্য কিছু টাকার বিনিময়ে রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব, এই ধারনাটাকে কায্যকর করবার জন্য লালন করা হচ্ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে এটা প্রমাণিত হয়েছে যে আমাদের ধারনা ভুল ছিল, এবং বিশ্বজুড়ে এক কোটিরও বেশী শিশু টিকা নেওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

আমরা গত ১৮ বছরে ভ্যাকসিনে ১৫.৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করেছি। নি:সন্দেহে এটি একটি বিপুল পরিমান বিনিয়োগ হয়েছে। উন্নত টিকাদান পদ্ধতির একটি ফলাফল হলো, শিশু মৃত্যুর সংখ্যা এত বেশি যে ছিলো যে সেটা উল্লেখযোগ্য হারে কমে গিয়েছে, কার্যদত পুর্বে যেখানে ২০০০ সালে এক কোটি শিশুর অকাল মৃত্যু হয়েছে কিন্তু ২০১৭ সালে কমে সেটা ৫০লক্ষে এসে ঠেকেছে। তবে আশ্চায়্যজনকভাবে অকাল মৃত্যুর শিকার এই ৫০ লক্ষ শিশুর পরিবার তাদের সন্তান কিংবা ভাই-বোন হারাবার জন্য মানসিকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত নয়।

আমরা আমাদের দেশকে ভালোবাসি এবং এখানে বসবাসকারী লোকদের সম্পর্কে গভীরভাবে চিন্তা করি, তাই আমরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সমস্ত প্রকার অসঙ্গতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমাদের ব্যক্তিগত সমস্ত অভিজ্ঞতা প্রমান করে যে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধার চাবিকাঠি হচ্ছে শিক্ষা। ২০২০ সাল নাগাদ আমেরিকার দুই-তৃতীয়াংশ পরিমান চাকুরী ও কাজের জন্য উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা বা সমমানের প্রশিক্ষণ প্রয়োজন হবে।

যেহেতু লক্ষ লক্ষ মার্কিন ছাত্ররা উচ্চমানের শিক্ষা পায় না, এবং এই সমস্যাটি আমরা বিগত ১৮ বছর যাবৎ লক্ষ্য করে আসছি। তাই এখন আমাদের লক্ষ্য হল যে সমস্ত ছাত্ররা স্কুলে যাবে, আমরা তাদেরকে নিজ নিজ স্বপ্ন পুরনের জন্য তৈরী করব।

বিল গেটস: আমরা চেষ্টা করছি কিভাবে আমরা শিক্ষার ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রে আমাদের কাজকে বিস্তৃত করতে পারি। মার্কিন দারিদ্র্য থেকে গতিশীলতা নেভিগেশনে আমরা মার্কিন অংশীদারিত্বের তহবিল করে থাকি, যা মানুষের উন্নত অর্থনৈতিক গতিশীলতার সিড়ি হিসেবে অধীত উপায়। যদিও আমরা অন্যান্য দেশে গরিব মানুষের জীবন সম্পর্কে জানতে ব্যাপকভাবে ভ্রমণ করি, তবে আমেরিকাতে আমরা কম কাজ করেছি। তাই চুড়ান্তভাবে, আমরা আরও শিখতে দক্ষিণেও একটি ট্রিপ নিয়েছে।

আটলান্টাতে, আমরা একটি মায়ের সাথে সাক্ষাত করেছি যিনি আমাদের একটি হতাশাজনক গল্প শুনিয়েছেন যে, তার নবজাত পুত্রের সাথে হাসপাতালে থাকাকালীন সময়ে সঠিক সময়ে বাসা ভাড়া দিতে না পারায় তাকে তার অ্যাপার্টমেন্ট থেকে থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল। শহরটির নিম্ন আয়ের এলাকাগুলির মধ্যে একটি অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের কিছু অধিবাসীর সাথে আমরা কফি পার্টির আয়োজন করেছিলাম। তারা তাদের বাড়ির একটি দেয়াল এবং সিলিংএর উপর ক্রমবর্ধমান ছাঁচ আমাদের দেখিয়েছেন। তারা বলে যে তারা নিয়মিতভাবে তাদের ছেলেমেয়েদের একটি বিছানায় বা বাথটাবে লুকিয়ে রাখে কারণ বন্দুকযুদ্ধের শব্দ।

এটা বলা ন্যূনোক্তি হবে যে আমরা আটলান্টাতে যেসব লোকেদের দেখা হকরেছিলাম তারা অনেক বড় চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছিল। কিন্তু তবুও তারা অবিশ্বাস্যভাবে স্থিতিশীল ছিল। একটি বয়েজ এন্ড গার্লস ক্লাবে আমরা একটি লোকের সাথে সাক্ষাৎ করেছি যিনি নিজের টাকায় বাচ্চাদের জন্য দুপুরের খাবার কিনে দেন। আমরা কারাগারের সাবেক কয়েদীদের সঙ্গে কথা বলেছিলাম যারা এখন চাকরি করছেন এবং পরিবারের সাথে থাকছেন।

আমরা এই ভ্রমণে দেখেছি যে শিক্ষার গুরুত্ব আরো জোরদার, কারণ এটি শেষ পর্যন্ত কম আয়ের ছাত্রদের এবং বিভিন্ন শ্রেনীর ছাত্রদের জীবনমানে অন্য সকলের মত একই ও সমান সুযোগ তৈরী করে দিতে পারে। এই ভ্রমন ও দর্শন আমাদের অন্যান্য উপায়ে চিন্তা করার মাধ্যমে আমরা মানুষকে দারিদ্র্য থেকে কিভাবে বের করে নিয়ে আসতে পারি সে বিষয়ে জানতে ও বুঝতে সাহায্য করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অর্থনৈতিক গতিশীলতার নিম্নোক্ত বিষয়গুলি গভীরভাবে বিজড়িত হয়েছে; শিক্ষা, কর্মসংস্থান, জাতিয়তা, বাসস্থান, মানসিক স্বাস্থ্য, কারাবাস, সম্পদের অপব্যবহার। আমরা এখনো সিদ্ধান্ত নিই নি যে আমরা যা শিখছি তা আমাদের দানকে কিভাবে প্রভাবিত করতে পারে, তবে নিশ্চিতভাবে এটি অবশ্যই আমাদের উপর প্রভাব ফেলেছে। আমরা একটি কৌশল উপর স্থির করে আমাদের পদ্ধতি সম্পর্কে আরও আপনাদের জানাবো।

[চলবে…]


সুত্র: গেটস নোট (www.gatesnotes.com)

Bengali Translation of 2018 Annual Letter of Bill Gates and Melinda Gates to Answering 10 Toughest Questions (Question#01) Translated by Raych Hatashe. 

Tuesday

মানব ক্লোনিংকে হ্যা বলুন Yes to Human Cloning — IRM, Clonaid, E.T. Embassy

“Mr. Raël Claude Maurice Marcel Vorilhon, known as Rael Maitreya is a Philosopher of Galaxia life & origin included human life in the planet earth. His delivered theories popularized as Raelism (International Raelian Movement). He wrote many books on the space science, life science and political science. He is also founder of world’s first & largest human cloning company Clonaid, for first they gave birth of a cloning baby namely Eve. I also promote their “Yes to Human Cloning” campaign and also appointed as Galactic Guide for International Raelian Movement at ElohimEmbassy.org, I translated www.bn.rael.org into Bengali language during 2008-2009. Also I taken his an exclusive interview and was published in The Nigerian Voice entitled The Raelian Movement will become even stronger after my death: Rael Maitreya — an Interview with TNV” —Hatasheriseldon

প্রতিবছর যে হাজার হাজার ইউএফও‘র অবস্থান সর্ম্পকে জানা যায় সেইসব ইউএফও‘র বহি:জাগর্তিকদের সাখে প্রকৃতপক্ষে একজনই সাক্ষাত করেছিলেন- একজন ড্রাইভার যিনি সাক্ষাত করেছিল। পৃখিবীর মানব সম্প্রদায়ের জীবনের গোপন রহস্য এবং নিকট ভবিষ্যত সম্পর্কে এই বহি:জাগর্তিকরা কি কি তথ্য দিয়েছিলেন? এবং এই সমস্ত তথ্য সবকিছুই কি হাজার হাজার ‍মানুষ, ইতিহাসবিদ এবং বিজ্ঞানদের কৃতজ্ঞতা এবং সর্বসম্মতিক্রমে প্রকাশ করা হয়েছিল?
আপনী কি এমন একটি বই পড়ার জন্যই এতদিন অপেক্ষা করছেন? 
bn.rael.org এই উয়েব সাইটটি আপনাকে আপনার নিজের সম্পর্কে জানার সুযোগ করে দিচ্ছে- অতিমাত্রিক বিস্ময়কর কিছু “বার্তা” যা নক্ষত্রপুঞ্জ থেকে পৃখিবীর মানব সম্প্রদায়ের জন্য এসেছে। 

ডাউনলোড করুন http://bn.rael.org/request.php?138

মাত্র সাতাশ (২৭) বছর বয়সে, ক্লদ ভরিলহন যিনি বর্তমানে “রায়েল” নামে সুপরিচিত- একজন মটর কার ক্রীয়াবিদ ও সাংবাদিক পেশায় নিয়োজিত ছিলেন। কিন্তু ১৯৭৩ সালের ১৩ই ডিসেম্বর যখন তিনি হাটতে বেরিয়েছিলেন, তার এই জীবন কর্মের আমুল পরিবর্তন আসল। তিনি বহি:জাগর্তিকদের সাখে সাক্ষাত করে জ্ঞানের সুউচ্চ প্রাসাদ জান্নাতুল ফেরদাউসে আহরোন করলেন এবং স্থায়ীভাবে তার জীবনে পরিবর্তন আসল। তারপর থেকে তিনি পৃখিবীকে পুর্নগঠন করার জন্য মিডিয়াতে সাক্ষাতকার ও আন্তর্জাতিক সম্মেলনের মাধ্যমে বিশ্ব ভ্রমন করে যাচ্ছেন। 

সেই দিন সম্পর্কে রায়েলের নিজের মুখের বর্ননা শুনুন।

বহি:জাগতিকদের সাক্ষাতের মাধ্যমে রায়েল তাদের কাছ থেকে মানব জীবন সম্পর্কে গুরুত্বপুর্ন বার্তা গ্রহন করেন। প্রাচীন ইতিহাস কিংবা মিখলজি, আধুনিক বিজ্ঞান, ধর্ম এমনকি বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী সম্পর্কে আপনার আগ্রহ থাকলে আপনী এইসব বার্তা পড়ে জ্ঞানের নতুন দিগন্তে পদার্পন করতে পারবেন যা আপনাকে সত্য সন্ধানী হতে সাহায্য করবে।
এই ভিডিওতে রায়েল সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপুর্ন বিষয় সংক্ষেপিত করা হয়েছে।



# রায়েল সিরিজের বইসমুহ #

১. বুদ্ধিবৃত্তিক পরিকল্পনা- ইলোহিমদের বার্তা (Intelligent Design- Message from the Designers):

(রায়েল সিরিজের যে কোন বই পড়ার আগে এটি অবশ্যই পড়ে নিন)

Intelligent Design

প্রাচীনকালে মানুষ জানত যে পৃথিবী একটি সমতল ভুমি এবং একটি কচ্ছপের পিঠের উপরে অবস্থান করছে এবং এমন আরো বহু কাল্পনিক মতবাদ চালু ছিল। মানুষ জানত সূর্য পুথিবীর চারদিকে ঘোরে, এই কথার বিরোধিতার জন্য ব্রুনো ও গ্যালিলিওর উপর নেমে এল মৃত্যু খড়গ। পৃথিবীতে স্রষ্টারর ধারনা আসার পর হতেই বহু ধর্মের সৃষ্টি হয়েছে। কোরআন, বাইবেল, বেদ, ত্রিপিটক সহ আরো বহু ধর্মীয় গ্রন্থে স্রষ্টার একক অবস্থানের কথা বলা হয়েছে। বর্নিত হয়েছে যে, পৃথিবী এবং পৃথিবীর সমস্থ প্রান স্রষ্টার রহস্যময় সৃষ্টি, এইসব জ্ঞান শুধুই তার মধ্যে সীমাবদ্ধ। স্রষ্টা বিশ্বভ্রক্ষান্ডে একক ও অদ্বিতীয়, কিন্তু সত্যিই কি তাই? “মেসেজ ফর্ম ডিজাইনার’স” বা “ইলোহিমদের বার্তা” গ্রন্থে রায়েল দেখিয়েছেন এই পৃথিবীর সমস্থ প্রান ও আমাদেরকেও সৃষ্টি করেছিলেন আমাদেরই ছায়াপথের অন্য অংশের প্রাগ্রসর বিজ্ঞানীরা। তারা ব্যবহার করেছিলেন জটিল ডিএনএ (রিইবোনিউক্লিইক এসিড) জ্বীনতত্ত্ব প্রকরন সমুহ এবং এখন যেহেতু আমরা কৃতিত্ব স্থরের কাছাকাছি পৌছে যাচ্ছি তাই তারা এখন পৃথিবীতে এসে খোলাখুলি ভাবে আমাদের সাথে সাক্ষাৎ করতে চান। ১৯৭৩ সালের ডিসেম্বরে ফ্রান্সের দুরবর্তী অঞ্চলে এক অগ্নিচুড়ায় কাকতালীয় ভাবে রায়েলের সাথে সারাসরি সাক্ষাৎ করেন একজন ইলোহিম এবং তার মাধ্যমে তারা তাদের বার্তাসমুহকে পৃথিবীময় ছড়িয়ে দেন; পৃথিবীতে প্রানের অস্থিত্ব ধারাবাহিক পরিবর্তনের ফল নয় বরং সৃষ্টির বহি:প্রকাশ। এটা স্বর্গীয় নয় বরং গবেষনাগারে জীব ও জ্বীন কোষের সংমিশ্রনে বৈজ্ঞানিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক সৃজনশীল পদ্ধতিতে ‍সৃষ্ট। “মেসেজ ফর্ম ডিজাইনার’স” এই বইটিকে “চুড়ান্ত বার্তা”ও বলা হয়। আপনীও পড়ুন তাহলে পাল্টে যাবে আপনার চিন্তাধারা ইতিমধ্যে যা পাল্টে দিয়েছে পৃথিবীকে।

(এই বইটা পড়ার জন্য আপনার অবশ্যই Acrobat version 5 বা এর উন্নত ভার্সন ইনস্টল করা থাকতে হবে)


২. বহির্জাগতিকদের স্বাগতম (Let's Welcome the Extraterrestrials):

Let's Welcome the Extraterrestrials

এই বইটিতে রায়েল এমনকিছু সংখ্যক প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন যা মানুষের মনে বারবার উদয় হতে পারে এবং ইতিমধ্যে অনেকে উপস্থাপন করছেন। সংযুক্ত হয়েছে কিছু আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উপস্থাপিত পারমানবিক যুদ্ধ সর্ম্পকে ইলোহিমদের বার্তা। অতি প্রাচীনকালে কোন একদুর গ্রহে মানবজাতির সাদৃশ্যপুর্ন একজাতির সন্ধান মেলে। যারা জীবনের রহস্য উৎঘাটন করতে গিয়ে শতকরা একশতভাগ সফলভাবে মানব দেহে ডিএনএ বা ডিঅক্সি রিইবোনিউক্লিইক এসিড এর প্রভুত্ব আবিস্কার করেন। তারা একটি গ্রহের রহস্য আবিস্কার করতে গিয়ে মহাবিশ্বের রহস্য উৎঘাটন করেন এবং এমন একটি গ্রহের সন্ধান পান যেখানে জীবের ক্রমবিকাশের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ রয়েছে। তারা সেখানে একটি সমৃদ্ধ গবেষনাগার স্থাপন করে মুক্তভবে জীবন্ত বস্তু তৈরীতে সক্ষম হন। উদ্ভিদ ও প্রানীর সমন্বয়ে তারা তাদের নিজস্ব আকৃতিতে মানব সন্তান সৃষ্টিতে সক্ষম হন।

এই বইটিতে আপনী রায়েল তত্ত্ব সর্ম্পকে আপনার অনেক প্রশ্নের সমাধান পাবেন যেমন; রায়েলিও আন্দোলন ও অর্থ, সময় ও মহাশুন্য কিছুই স্থির নয়, আত্মা বা ইশ্বর নয় শুধু ইলোহীম এবং জেনেটিক কোড, আনন্দ বা সুখভোগ, জীবনের উদ্দেশ্য, মৃত্যু, যৌন স্বাধীনতা ও বাধ্যবাদকতাহীনতা, সমকামিতা, বেহেশত বা স্বর্গ এবং অস্পরী বা হুরী সহ আরো অসংখ্য প্রশ্নের সমাধান।


৩. মানব ক্লোনিংকে হ্যা বলুন (Yes to human cloning):


Yes to Human Cloning

বর্তমান বিশ্বে প্রতিরুপ প্রক্রিয়া বা ক্লোনিং প্রযুক্তি হচ্ছে অমরত্ব বা অনন্ত জীবনে প্রবেশের প্রথম ধাপ। অতীতে ও বর্তমানে পৃথিবীতে প্রভাব বিস্তারকারী সমস্ত ধর্মগ্রন্থই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ পুর্নজীবন, পুনুরুত্থান বা অনন্ত জীবন দান করার। কিন্তু যে স্বর্গীয় বা বেহেশতীয় জীবনের কথা বলা হয় সেটা কতটা বৈজ্ঞানিক যুক্তি সম্পন্ন? রায়েল এই বইতে দেখিয়েছেন মানব ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে কিভাবে অনন্ত জীবন, অমরত্ব বা চিরস্থায়ী পাওয়া যাবে। এই বইটি নিছক হাহাকার নয়, বিজ্ঞান ভিত্তিক ও যুক্তি সম্পন্নভাবে তিনি ব্যাখ্যা করেছেন কিভাবে অনন্ত জীবনে প্রবেশ করা যাবে এবং হাজার হাজার বছর এমনকি অনন্তকাল ধরে একজন মানুষ শাররীক বা শাররীক অবস্থান ছাড়াই বেচে থাকতে পারবে।

উল্লেখ্য, বইয়ের বর্ননাগুলি দ্বা-বিংশ শতাব্দির বিজ্ঞান কল্পকাহিনী নয় বরঞ্চ এগুলো পরবর্তী বিশ বছরের মধ্যে সম্ভবপর হয়ে উঠবে।


৩. মৈত্রিয়া-মহাপুরুষের জ্ঞান (The Maitreya: Extracts from his Teachings):


The Maitreya

বিগত ত্রিশবছরে রায়েল পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যত সভা-সেমিনার করেছেন সেই সব সভা সেমিনার হতে তার বানী সংকলন হচ্ছে এই বইটি। তার গুরুত্বপুর্ন উক্তির বিশদ ব্যাখ্যাসহ বর্নিত হয়েছে। বইটিতে বহু বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে যেমন; ভালবাস, সুখভোগ, আত্মিকতা, পড়ালেখা, মিথলজি, সন্ত্রাস, বিজ্ঞান, প্রেম সহ আরো বহুবিদ বিষয়, যা আপনার মনে তৈরী হওয়া প্রশ্নগুলির সমাধান করতে পারবে।


৪. ইন্দ্রিয়জ ধ্যান (Sensual Meditation):


The Sensual Meditation, Geniocracy

শুধুমাত্র ত্রিশবছর আগেও যদি কেউ বলত কম্পিউটার আমাদের বিপ্লব ঘটাবে কেউ সেটা বিশ্বাস করত না কিন্তু আমাদের পচিশ হাজার বছরের বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রাকে ধন্যবাদ। এই বইটি মুলত বিজ্ঞান ভিত্তিক কিছু ধ্যানের নির্দেশিকা যা রায়েল কর্তৃক উদ্ভাবিত। তিনি দেখিয়েছেন ধ্যান কিভাবে বিজ্ঞানের চালিকা শক্তি বা অতি গুরুত্বপুর্ন অংশ হতে পারে। ইন্দ্রিয়জ ধ্যানের মাধ্যমে আপনী নিজেকে নতুন ভাবে আবিস্কার করতে পারবেন, শিখতে পারবেন কিভাবে জীবনের হাসি-আনন্দ, দুঃখ, যৌনতা, পরিবার, সমাজ ও রাষ্টীয় ব্যবস্থা ইত্যাদি উপভোগ করবেন। রায়েল নির্দেশিত ইন্দ্রিয়জ ধ্যান আজকের দিনে সর্বপ্রকার মানুষের জন্য খুবই জরুরী। এই ধ্যান অনন্ত কোষের মধ্যে ক্ষুদ্রাকারে ও সুচারুভাবে সচেতনতা জাগায় এবং জৈব রাসায়নিক পর্যায়ে নিয়ে আসে।


৫. জেনিওক্রেসি (Geniocracy): জনগনের জন্য প্রতিভাবান কর্তৃক জনগনের সরকার:


Geniocracy

“জেনিওক্রেসি” রায়েলের বহুল আলোচিত একটি বই, যা বিশ্ব নেতৃবৃন্দদের মধ্যেও ব্যাপকভবে আলোচিত হয়েছে। পৃথিবী ও নতুন প্রজম্নের বিভিন্ন সমস্যা যেমন; যুদ্ধ, ক্ষুধা, দারিদ্রসহ আরো বহুবিদ সমস্যা ও তার সমাধান আলোচনা করা হয়েছে। রায়েল খোলামেলা ভাবেই আলোচনা করেছেন; একটি দেশের সরকার ব্যবস্হা কেমন হবে। তার মতে: Collegial government by geniuses elected under a selective democracy. তিনি ব্যখ্যা করেছেন কিভাবে জেনিওক্রেসি প্রতিষ্ঠিত হবে এবং বৈজ্ঞানিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক সৃজনশীল উপায়ে একটি সুন্দর পৃথিবী তৈরীর জন্য অগ্রসর হওয়া যাবে, যার মাধ্যমে আমরা চিরস্থায়ী জীবনে প্রবেশ করতে পারি। রায়েল আপনাকে আমন্ত্রন জানিয়েছে, বইটি পড়ুন এবং নিজের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিন।


পৃথিবীর যেকোন ভাষায় সবগুলি বই আপনী www.rael.org থেকে ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবেন কিংবা ছবিসহ প্রিন্টেড ভার্সনের জন্য আমাজান ডট কম হতে বইগুলি ক্রয় করতে পারেন।

তবে প্রথমটি (বুদ্ধিবৃত্তিক পরিকল্পনা: Intelligent Design) ব্যাতিত বাকী বইগুলি ডাউনলোড করতে হলে আপনাকে অবশ্যই রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে। বাংলাভাষার বইয়ের ডাউনলোড লিংক- ফ্রি ই-বুক:
Bangla | English


Visit web site of E.T. Embassy of International Raelian Movement (IRM) https://ElohimEmbassy.org and Clonaid the Pioneers in Human Cloning, The first human cloning company https://www.clonaid.com 

 

Mars1 Permanent Human Colony in Planet Mars by 2032

NASA boarding pass for Hatashe on the flight of Mars One - Human Settlement of Mars


Mars One - Human Settlement of Mars aims to establish a permanent human settlement on the Planet Mars by 2032 through the integration of existing technologies from industry leaders world-wide.
 

 www.mars-one.com

Thursday

বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিডিআর) গনহত্যা অভিযোগ ও মামলা

"বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিডিআর) গনহত্যা অভিযোগ ও মামলা"

বাংলাদেশ পুলিশ এবং সংশ্লিষ্ট কোর্টকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নিম্নোক্তদের বিরুদ্ধে 2009 সালের ফ্রেব্রুয়ারী মাসে বিডিআর গনহত্যা অভিযোগ দায়ের ও মামলা নথিভুক্ত করবার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা, প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়, তৎকালীন আওয়ামীলীগ সরকারের দায়িত্ব প্রাপ্ত মন্ত্রীগন এবং নাম না জানা আরো কমপক্ষে একশত জনকে বিডিআর গনহত্যায় ষড়যন্ত্রে অভিযুক্ত করে এই মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

নাম না জানা অভিযুক্ত কমপক্ষে একশতজন অপরাধীকে খুজে বের করবে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থাসমুহ।

বিডিআর গনহত্যা অভিযোগ ও মামলায় উল্লেখযোগ্য অপরাধসমুহ হচ্ছেঃ
ক) বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিডিআর) সৈনিক ও কর্মকর্তাদের উস্কানী দিয়ে সেনা অফিসার ও অধীনস্ত সৈনিকদের সাথে স্বসস্ত্র সংঘর্ষ তৈরী করার ষড়ষন্ত্র করা।
খ) পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে অসংখ্য বিডিআর অফিসারদের হত্যা করা হয়।
গ) বিডিআর গনহত্যা ষড়যন্ত্রের প্রমান লোপাটের চেষ্টা করা এবং অসংখ্য ও গুরুত্বপুর্ন প্রমানসমুহ লোপাট করা।
ঘ) বিডিআর গনহত্যা ও ষড়যন্ত্র এবং গনহত্যা পরবর্তী দায়ের করা দায়মুক্তিমুলক মামলাকে সম্পুর্ন ভুল ও বিপরীত পথে চালিত করা।
ঙ) বাংলাদেশ সামরিক বাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থাসমুহ এবং আইন-শৃংখলা বাহিনী পুলিশ ফোর্সের প্রতি আওয়ামীলীগের দলীয়ভাবে রাজনৈতিক নিয়ন্ত্রন প্রতিষ্ঠা করার অবৈধ চেষ্টা করা এবং রাষ্ট্রের এইসব প্রতিষ্ঠান ও রাজনৈতিভাবে বিরোধীদের প্রতি ভীতি ও ত্রাস ছড়ানোর মাধ্যমে বাংলাদেশে একদলীয় রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা।

Digital Life

"ডিজিটাল জীবন"
--হাতাশি।

"উয়েব ওয়েদার সোর্স থেকে পাওয়া তথ্যমতে এটা জানতে পারা যাচ্ছে যে, স্পাইওয়্যার, ম্যালওয়্যার, স্প্যাম, ইত্যাদি এবং ব্লাক অাউট, ওয়েব ফায়ারিং, উয়েব ক্লাউডের পর ইন্টারনেটের ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ডে এবার যুক্ত হতে যাচ্ছে উয়েব রেইন (WEB RAIN)। অর্থ্যাৎ খুব শীঘ্রই ডিজিটাল জগতে বৃষ্টি হতে যাচ্ছে এবং এটা নিয়মিত চলমান উয়েব প্রকৃতি (WEB NATURE) হিসেবে স্থায়ীত্ব পাবে। ভার্চুয়াল জগতের বৃষ্টিতে দেখতে পাওয়া যাবে উয়েব সাইটে ঝরঝর বৃষ্টি হবে।" --Rain from Web Clouds.

জিসাস ক্রাইস্টকে যখন এহুদা শত্রুদের হাতে ধরিয়ে দিয়েছিলেন সেই পটভুমিটিকে পবিত্র বাইবেলে বর্ননা করা হয়েছে এভাবে যে, "তখন হঠাৎ করে এহুদার মধ্যে ইবলিশ শয়তান ঢুকে পড়ে।"

পৃথিবীর মানব সভ্যতায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি তথা ভার্চুয়াল কিংবা ডিজিটাল জগতের প্রসার হওয়ার পর থেকেই বিজ্ঞানীরা এটা গবেষনা করে চলছেন যে পৃথিবীতে আমাদের মানুষের জীবন প্রবাহ কি ইশ্বরের সৃষ্টি নাকি প্রকৃতির অবিরাম প্রক্রিয়া নাকি অতি বুদ্ধিমান ক্রিয়েচারের তৈরী এবং/অথবা নিয়ন্ত্রিত কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের ভার্চুয়াল জগতের মতে কোনো সিম্যুলেশন লাইফ?

কিন্তু যারা এইসব গবেষনা করেন, গবেষনা কাজে সহযোগিতা করেন, রসদের যোগান দিয়ে থাকেন তাদের নিশ্চয়ই স্মরন রাখা প্রয়োজন যে, মেডিকেল সায়েন্সে মেডিসিন ও মানুষের জীবন বাচানোর জন্য যেসব হিউম্যান অর্গানসমুহ এবং রসদ ও কাচামালের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ বিভিন্ন দেশে-দেশে পাচার হয়ে থাকে অবৈধভাবে এবং ক্রিমিনাল এক্টিভিটিজের মাধ্যমে। কিন্তু এসব যখন কাংখিত লক্ষ্যে পৌছায় তখন সেসব বৈধ ও অনেক বেশি মুল্যবান হয়ে যায়।  তবে শুরু থেকে যারা এসব অবৈধ পাচার প্রক্রিয়ার সাথে জড়িত তারাতো অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তাদের নগদ নগদ পাওনা পেয়ে যান কিন্তু এইসব অপরাধমুলক কাজের আগে-পরে কিংবা কোন একটা পর্যায়ে ধরা পড়ে যান তো তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এইসব ক্রিমিনালদের নিজ ক্ষমতা ও শক্তিবলেই নিজেদের সুরক্ষা করতে হয়।

মানবাধিকার লংঘিত হয়, মানুষের জীবন ও জীবিকা নিয়ে যে কোন প্রকার গবেষনা নিষিদ্ধ ও কঠোর শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

যারা উন্নত জীবন-যাপন করেন সেইসব অবস্থানে থেকে অন্যসবকিছুকে বিভিন্ন দৃষ্টিকোন থেকে ভাবতে পছন্দ করতে পারেন তারা। কিন্তু সত্যিকারে কোন গবেষনা যেখানে নিজের কিংবা অন্য যে কারো মানবাধিকার লংঘিত হয় সেখানে অইসব গবেষকদের উচিত অন্যকাউকে ব্যবহারের পরিবর্তে নিজেরাই যেন বাস্তব অভিজ্ঞতায় অভিজ্ঞতা অর্জন করে গবেষনা বুঝতে চেষ্টা করেন।  যারা সহযোগিতা করেন ও রসদের যোগান দেন তারাও নিশ্চয়ই বিরত থাকবেন।

গনতন্ত্র নিঃসন্দেহে পৃথিবীর মানুব সভ্যতায় যুগান্তকারী জীবন ব্যবস্থা কিন্তু গনতন্ত্র কি এখনো প্রাথমিক স্তর কিংবা শৈশব অতিক্রম পেরেছে? পারেনি। তবে গতকাল গনতন্ত্রের পক্ষে বেগম খালেদা জিয়ার সুদৃঢ় অবস্থান ও বার্তা এবং বক্তব্য তাকে গনতন্ত্র কর্মী হিসেবে পৃথবীর ইতিহাসে স্মরনীয় ও বরনীয় হয়ে থাকবে।

রাজা, বাদশা, সম্রাটদের নামের সাথে মহানুভব, ন্যায়পরায়ন, দয়ালু, ইত্যাদি যেসব বিশেষন যুক্ত হয়ে থাকতো সেসব তাদের কাজ ও অইসব গুনাগন প্রকাশের মধ্য দিয়েই যুক্ত হয়, আর আগে-পরে অনেকে এমনি-এমনিই ব্যবহার করে। গনতন্ত্রের পক্ষে বেগম খালেদা জিয়ার সুদৃঢ় নৈতিক অবস্থান ও বক্তব্য তাকে গনতন্ত্রের মানসকন্যা হিসেবেই স্বীকৃতি দেয়। আর জায়গা করে নিলেন গনতন্ত্রের মহান নারী হিসেবে।



HATASHE.BLOGSPOT.COM  

Wednesday

Rain from Web Clouds

Rain from Web Cloud: উয়েব ওয়েদার সোর্স থেকে পাওয়া তথ্যমতে এটা জানতে পারা যাচ্ছে যে, স্পাইওয়্যার, ম্যালওয়্যার, স্প্যাম, ইত্যাদি এবং ব্লাক অাউট, ওয়েব ফায়ারিং, উয়েব ক্লাউডের পর ইন্টারনেটের ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ডে এবার যুক্ত হতে যাচ্ছে উয়েব রেইন (WEB RAIN)। অর্থ্যাৎ খুব শীঘ্রই ডিজিটাল জগতে বৃষ্টি হতে যাচ্ছে এবং এটা নিয়মিত চলমান উয়েব প্রকৃতি (WEB NATURE) হিসেবে স্থায়ীত্ব পাবে। ভার্চুয়াল জগতের বৃষ্টিতে দেখতে পাওয়া যাবে উয়েব সাইটে ঝরঝর বৃষ্টি হবে।