কোহেকাফ নগরঃ টু দ্যা অডাসিটি (৩৩ - ৩৪)


৩৩: 
দশদিন পর।
সম্রাট মো এন দি লা তার জাইন কমান্ডার চিফ মার্শাল রুফাক ইনানকে ইম্পরিয়াল প্রাসাদে তার খাস কামরায় ডাকলেন। এই কামরায় সম্রাট পরিবারের জাইন ছাড়া কারো প্রবেশাধিকার নেই। সম্রাট বললেনঃ চিফ মার্শাল রুফাক ইনান। সেদিন যে মেসেঞ্ছার জাইনটি আমার সাথে বিতর্কে লিপ্ত হয়েছিল সে কি আপনার পরিচিত?
চিফ মার্শাল বললেনঃ সায়ার, সে ইম্পেরিয়াল নেভির তরুন অফিসার কিরান হাশ। তাকে সম্রাটের মেসেঞ্জার দায়িত্বে নিয়োগ দেওয়ার পুর্বে এডমিরাল তাকে আমার কাছে নিয়ে এসেছিল। আমিই তার নিয়োগ অনুমোদন করেছিলাম। আমি স্বীকার করে নিচ্ছি আমি যোগ্য জাইন বাছাইয়ের ক্ষেত্রে অদুরদর্শিতার পরিচয় দিয়েছি। তার সম্রাটের সাথে বিতর্কে লিপ্ত হওয়ার স্পর্ধা এবং অসৌজন্যমুলক আচরনের জন্য আমি ক্ষমা প্রার্থী, সায়ার।
সম্রাট জাইন কমান্ডার রুফাক ইনানের দিকে দৃষ্টি নিক্ষেপ করে বিড়বিড় করে বললেনঃ সম্রাট মো এন
দি লা এর কাছে আগত এবং তার কাছে থেকে প্রেরিত সমস্ত বার্তাই অতি জরুরী, প্রয়োজনীয় এবং গুরত্বপুর্ন।
কমান্ডার বললঃ সায়ার, আমি ইন্টেরিয়র এবং বিহেবিয়ারাল কাস্টমস ডিভিশনকে নির্দেশ দেবো তাকে সঠিকভাবে প্রশিক্ষন দেওয়ার জন্য।
সম্রাট বললেনঃ আপনী তাকে সংগে নিয়ে একদিন আমার কাছে আসুন তো কমান্ডার।
কমান্ডার ইনান বললঃ আমি তাকে আপনার কাছে নিয়ে আসবো, সায়ার।
পরদিন চিফ মার্শাল ইনান রুফাক যখন মেসেঞ্জার কিরান হাশকে নিয়ে সম্রাটের প্রাসাদে আসলেন তখন সম্রাট টেবিলে উবুড় হয়ে আলফা অডাসিটির মানচিত্র নিয়ে গবেষনা করছিলেন।
সম্রাট বললেনঃ ইয়াং জাইন কিরান হাশ, আমি তোমাকে অডিটর বিরাক বেথের কাছে আমার প্রতিনিধি করে পাঠাতে চাই। তুমি কি পারবে?
কিরান হাশ বললঃ আমি পারবো সায়ার।
কিছুক্ষন থেমে কিরান আবার বললঃ সায়ার, আমি এমন একটি বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করেছি যা আর কোনো জাইন জানে কিংবা পারে বলে আমার জানা নেই।
সম্রাট হয়ে বললেনঃ আমরা প্রত্যেকেই ভিন্ন ভিন্ন ভাবে বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষ যা সম্পর্কে অন্য জাইনরা অনভিজ্ঞ। সুতরাং সেসব ভেবে আমাদের মোটেই সময় নষ্ট করা উচিত নয়। প্রত্যেকের উচিত তাদের নিজস্ব কাজ ও দায়িত্বগুলি সঠিকভাবে সম্পাদন করা।
মেসেঞ্ছারকে বিদায় দিয়ে সম্রাট চিফ মার্শালকে বললেনঃ আগামী দু মাসের মধ্যে আপনার নাবিক মেসেঞ্ছারকে এমনভাবে প্রশিক্ষিত করে তুলুন যেন সে অডিটর বিরাক বেথের সাথে আমার প্রতিনিধি হয়ে কথা বলতে পারে। তাকে এক সপ্তাহ এই প্রাসাদে রেখে সবকিছু ঘুরিয়ে দেখে অভিজ্ঞ করে তুলুন। এম্পায়ারের অনেক গোপন ও মুক্ত প্রসাশনিক কাঠামোগুলি দেখান।
সম্রাট বলছিলেনঃ বহু জাইনরা অডিটরের সামনে গিয়ে কথা বলতে পারে না, অনেকে নিয়ন্ত্রনহীন হয়ে পড়ে, অজ্ঞান হয়ে যায় এবং অনেকে মানসিক ভাবে বিকারগ্রস্থও হয়ে পড়ে।

৩৪: 
আলফা অডাসিটির প্রতিটি নক্ষত্র মন্ডলী তে কমপক্ষে দশটি থেকে শুরু করে এক,দুই,তিন হাজার পর্যন্ত নক্ষত্র রয়েছে এবং যাদের অধীনে আছে অসংখ্য গ্রহ,উপগ্রহ এবং অন্যন্য উপাদান সমুহ। এই অডাসিটি কোহেকাফ নগর নামেও পরিচিত। এর প্রসাশনিক ও সরকার ব্যবস্থাটি জাইন সভ্যতার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ও শক্তিশালী কালেকটিভ সিস্টেম। কোহেকাফ নগরের একদিকে রয়েছে লাক্সরেক্স প্রিরার। এই অঞ্চল সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায় না। অন্য দিকগুলি বিভিন্ন জাইন এম্পায়ার,কমনওয়েল,ফেডারেশন,রিপাবলিক,কিংডম ও বিস্তৃত স্পেশ সহ বিভিন্ন অঞ্চল দ্বারা বেষ্টিত। কোহেকাফ নগর ঘিরে রেখেছে অডিটরিয়াল নেভীর সুবিশাল জাইন সৈন্য বাহিনী। তাদের দৃষ্টি এড়িয়ে কোহেকাফে একটি পরমানুও প্রবেশ করতে পারে না। অডাসিটি বা কোহেকাফের সব প্রাকৃতিক ও অতিপ্রাকৃতিক বিষয়সমুহ অডিটরিয়াল সরকার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত মর্মে জ্ঞাত রয়েছে।

সত্তর লক্ষ বিলিয়ন নক্ষত্র মন্ডলী দ্বারা গঠিত আলফা অডাসিটির মার্জিনালাইড ও এক্সট্রিম আন্ডারপ্রিভিলাইজড একটি প্লানেট সানাম্যাল। এই গ্রহে অডিটরিয়াল সরকারের সম্পৃক্ততা নেই। তবে অডিটরিয়ার ডকুমেন্টে এর নামকরন আছে সানাম্যাল কমপ্লেক্স ভিল আর সংক্ষেপে সানাভিল। সেই হিসেবে এটা নামেই শুধুমাত্র অডাসিটির অংশ। এই গ্রহটা আয়তনেও বেশ ছোট, মাত্র সতের কোটি বর্গ কিলোমিটার। সানাম্যাল কোন জীবন্ত কিংবা মৃত নক্ষত্রকে প্রদক্ষিন করে না। এখানে নক্ষত্রীয় আলোর কোন উতস নেই। মুলত এটা অন্ধকারে আচ্ছন্ন একটি গ্রহ। তবে প্রাকৃতিক গ্যাস, তৈল, গাছ-কাঠ এবং বিশেষ এক ধরনের মাটি এখানে জ্বালানী,আলো ও শক্তির উসত যোগায়। সানাম্যাল খুবই নির্জন একটি গ্রহ। এই গ্রহের কোন উপগ্রহও নেই কিন্তু কিছু গ্রহানুপুঞ্ছ আছে। সেইসব গ্রহানুপুঞ্জতে অনেক খনিজ ও প্রাকৃতিক সম্পদ আছে। মাঝে মাঝে সেখানের মাটি বা বনাঞ্চলে দাবানল হলে পুরো সানাম্যাল আলোকিত হয়। সানাম্যালে কখনো কোন বহিঃজাগতিক কিংবা ট্রাইব্যাসম্যান কিংবা কোন মার্চেন্টরা কিংবা পর্যটকরাও আসে না।
সানাম্যালের রয়েছে নিজস্ব সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য এবং অপ্রাতিষ্ঠানিক কিছু শিক্ষা ব্যবস্থা। সানাম্যালের আবহাওয়া ও অন্যন্য প্রাকৃতিক পরিবেশের কারনে এখানকার জাইনরাও শাররীক, মানসিক চর্চায় ভিন্নতা রয়েছে। বিশেষ করে তাদের যৌন জীবন। 

{চলবে} ……… 

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe

Comments