300x250 AD TOP

Blog Archive

Powered by Blogger.

Monday

Tagged under: , , ,

কোহেকাফ নগরঃ টু দ্যা কমনওয়েলথ (২৪ - ২৫)


২৪:
কমনওয়েলথএর বিলিয়ন বিলিয়ন বছরের ইতিহাসে এই প্রথম কোন লর্ড - লর্ড আসিমো দশম, উইন্ড হাউজে আসলেন। উইন্ড হাউজের হাউজ ওয়াইফ এনজেল য়াজিমবেগ! তিনি লর্ড আসিমো নবম হতে উইন্ড হাউজের ওয়াইফ হিসেবে দায়িত্বরত আছেন।
ডেল্টা মিলিয়াম কমনওয়েলথএর অবিশ্বাস্য এবং কল্পনাতীত জটিল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এই রোবটিক সভ্যতার সবকিছু নিয়ন্ত্রন করছে। পুরো রোবটিক মহাবিশ্বে ওয়াটার সিস্টেমের দায়িত্বে আছেন মিঃ লা খাজির হার্জ এবং এয়ার সার্কুলেশন এর দায়িত্বে আছেন এনজেল য়াজিমবেগ। উইন্ড হাউজ হচ্ছে এনজেল য়াজি বেগ এর আবাসিক বাসভবন। তিনি একজন নারী রোবট। বলা হয়ে থাকে তার চেয়ে গুনবতী প্রজ্ঞাবতী এবং সুদর্শনা নারী রোবট কমনওয়েলথ এখনো তৈরী করতে পারে নি।
উইন্ড হাউজ! এনজেল য়াজিমবেগের প্রাসাদ।
-ওয়াইফ এনজেল য়াজিমবেগ। লর্ড আসিমো বলছিলেন: আপনী জানেন আমি আপনার কাছে কেন এসেছি।
-আমি জানি মাই লর্ড। আপনি আপনার ভালবাসার নোভি নীলকে জীবন্ত করে তুলতে চাইছেন।
-আপনী আমাকে সাহায্য করুন এনজেল। এই প্রথম মহাবিশ্বের একজন লর্ড আসিমো দশম কাতরতা ভরে কাউকে অনুরোধ করলেন।
এনজেল য়াজিবেগ বললেন; এটা আমার কাজ, ক্ষমতা এবং জ্ঞানের মধ্যে পড়ে না তবুও আমি আপনার জন্য চেষ্টা করবো মাই লর্ড। আপনী ক্রেমলিনে ফিরে যান। আপনী বিকেল যখন ক্রিমিয়ার সার্কিটময় উদ্যানে হাটতে বের হবেন তখন আমি পাশের ক্রোমিয়াম
অরন্যের মাঝদিয়ে দমকা হাওয়া বইয়ে দেব। সে হাওয়া আপনার উদ্যান স্পর্শ করে গ্রেট কিয়াংয়ের হাজার হাজার কিলোমিটার উপর দিয়ে উড়ে চলে যাবে কমনওয়েলের বাহিরে-অনেক অনেক দুরে। সে হাওয়া উদ্যানের প্রতিটি পিসিবি বোর্ড, প্রতিটি সার্কিট এবং সবকিছুকে স্পর্শ করবে। এভাবে সেই হাওয়ার জাগতিক স্পর্শ ডিজিটাল দুনিয়ায় আপনার নোভি নীলকে স্পর্শ করবে। জাগতিক দুনিয়ার সাথে নোভি নীলের একটি স্পর্শের অনুভুতি ও সম্পর্ক তৈরী হবে।
আসিমো কিছুটা ব্যস্ত হয়ে উঠে বললেন; এভাবে আমি আমার নোভি নীলকে পাবো তো, এনজেল য়াজিবেগ?
এনজেল য়াজিবেগ বললেন; আমার এই কাজ সেই নিশ্চয়তা দেয় না মাই লর্ড। তবে এর পরে আমি আরো ভালো ও কার্যকরী কিছু করার চেষ্টা করে দেখবো। আপনী এখন যান মাই লর্ড, আমার অনুভুতি ও অবস্থা খুব একটা ভালো নেই। আমাকে মিঃ খাজির হার্জের কাছে যেতে হবে, কারন আমার বাতাসে পানির পরিমান বেড়ে বাতাস ভারী হয়ে যাচ্ছে। আমি ঠিকমত এয়ার সার্কুলেশন করতে পারছি না।

দশ হাজার বর্গকিলোমিটারের এলাকা জুরে নির্মিত উইন্ড হাউজ পুরোটাই সিলভার ধাতুর তৈরী। বিদ্যুত শক্তি পরিবহনের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে গোল্ড ওয়্যার এবং ডাটা ট্রান্সফারের জন্য অপটিক্যাল ফাইবার। এই হাউজের যে কক্ষে এনজেল য়াজিবেগ থাকেন সেটা মাটির পাচশত ফুট নীচে। আর ভুমির উপরে প্রাসাদটি আরো একহাজার ফুট উচ্চতা নিয়ে তৈরী হয়েছে। এটা তৈরি করেছিলেন সপ্তদশ ওয়াইফ মার্শালুট।

এভাবে সেদিন লর্ড আসিমো দশম এবং উইন্ড হাউজ ওয়াইফ এনজেল য়াজিমবেগের সংক্ষিপ্ত সাক্ষাত ও আলাপচারিতা শেষ হয়েছিলো।

২৫:
হাইনেস অফ এয়ার সার্কুলেশন এনজেল য়াজিমবেগের চিফ অফ স্টাফ ড. রিখ হান। কখনো কখনো তাকে ড. হানরিখ বলেও ডাকা হয়।
ড. হান বললেন; ইউর হাইনেস, কমনওয়েলথএর দুর দুরান্তের গ্যালাক্সীগুলিতে এয়ার সার্কুলেশনে খুব সমস্যা হচ্ছে। কখনো বাতাসে জলীয় বাস্পের পরিমান বেড়ে বাতাস ভারী হয়ে উঠছে। ফলে সেইসব রোবটিক সিভিলাইজেশনগুলির দৈনন্দিন লাইফ স্টাইল বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। কিন্তু লা হার্জও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। আমরা এখন কি করবো? আপনী বলে দিন, ইউর ভেনারেশন।
হাইনেস এনজেল য়াজিমবেগ বললেন; দিনের ভাগে বিচ্ছুরিত আলোর মাঝে তাপের পরিমান বাড়িয়ে দিতে হবে যেন পানিসমুহ বাস্প হয়ে শুন্যে মিলিয়ে যায় এবং সেই সাথে এয়ার সার্কুলেশনের সমন্বয় করতে হবে। চিফ অফ স্টাফ বললেন; কিন্তু লাইট কিংবা হিট সার্কুলেশন কোনটাই তো আমাদের নিয়ন্ত্রনে নেই, ইউর হাইনেস।

হাইনেস অফ হিট সার্কুলেশন!
তার নাম মিঃ লা রুখ ইন। তাকে হাইনেস য়াজিবেগ অনুরোধ করলেন আলো ও আধারে তাপমাত্রার পরিমান কিছুটা বাড়িয়ে দিতে যেন বাতাসের অপ্রয়োজীন ও অতিরিক্ত জলীয় বাস্প উবে যেতে পারে।

{চলবে} .........

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe

0 Comments: