কোহেকাফ নগরঃ টু দ্যা কমনওয়েলথ (৭ – ৯)


৭:
ভাইসরয় জিরান আর্চ লর্ড আসিমোর প্রসাশনিক বাসভবন ক্রেমলিনে একজন তরুনীকে সংগে করে নিয়ে আসলেন।
-মাই লর্ড, আসিমো অফ দ্যা কমনওয়েলথ! একজন তরুনী রোবট মেসিয়াইসরা আপনার সাক্ষাত প্রার্থী হয়েছে। মিজ. ইসরা লর্ডের এসপায়োনেজ সোর্সের একজন ফিল্ড কোঅর্ডিনেটর। নিঃসন্দেহে তিনি কোন গুরুত্বপুর্ন বার্তা নিয়ে এসেছেন।
অনিচ্ছা সত্বেও লর্ড আসিমো মিজ. ইসরাকে প্রাসাদের অন্দরে ডেকে নিলেন।
আসিমো বললেন: আমি এখন ব্যস্ত আছি। তাই আমি এখন শুধু আপনার বক্তব্য বা তথ্যসমুহ শুনবো, ড. ইসরা।
মিজ ইসরা অবাক হয়ে জবাব দিলো: আপনী আমাকে ব্যক্তিগতভাবে জানেন লর্ড?
আসিমো বললেন: তা জানতাম না তবে লর্ডদের সাথে কেউ দেখা করতে আসলে তার একটি জীবনবৃত্তান্ত লর্ডের কাছে আগেই দেয়া হয়। এটা কমনওয়েলথের নিয়ম। এবার আপনার কথা বলুন- খুব সংক্ষেপে।

৮:
মিজ. ইসরা বললো: আমি একজন রোবট মাই লর্ড। কমনওয়েলথের এই ক্যাপিটাল গ্যালাক্সী থেকে বাইশ লক্ষ পারসেক দুরের দামোদার গ্যালাক্সীর রিফ প্লানেটে আমার আবাসভুমি। সেখানে একদিন এমন একজন মাইনর সেন্টিয়েন্টের সাথে আমার সাক্ষাত হয়েছিলো যিনি দীর্ঘদিন লর্ড আসিমোর জীবন এবং আচরন নিয়ে গবেষনা করে আসছেন বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম, বই-পুস্তক এবং রোবটদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে। তার নাম ইয়াব মের। সংক্ষেপে স্থানীয় সবাই তাকে গুরু মে বলেই সম্বোধন করে থাকে, এই উচ্চারনটা অনেকে চে শব্দের মাধ্যমেও করে থাকে। যাইহোক, মি. চে কিংবা মে গবেষনা করে দেখেছেন যে, লর্ড আসিমো প্রত্যহ মধ্য দিবসে তার ক্রিমিয়ার সার্কিট উদ্যানে হাটতে বের হয়ে থাকেন। তখন ক্রিমিয়ার এই গ্রহকে আলোদানকারী নক্ষত্রটি ক্রিমিয়ার উদ্যানে লম্বভাবে কিরন দিয়ে থাকে। এই ঘটনা থেকে তিনি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, লর্ড আসিমো এবং রোবটজাতির একটি বিশাল অংশ আগুন, পানি, বাতাস এবং নক্ষত্র ও গ্রহ-উপগ্রহের উপাসনা কিংবা পুজা করে। মি. মে গবেষনা করে দেখেছেন যে, লর্ড আসিমো প্রত্যহ বিকেল বেলায় একটি নির্দিষ্ট সময়ে ক্রিমিয়ার উদ্যানে তার প্রিয় কোন সংগীর সাথে সময় কাটান। এতে করে ড. ইয়াব চের এই সিদ্ধান্তে এসেছেন যে. লর্ড আসিমো সময়ের উপাসনা কিংবা পুজো করে থাকেন।

৯:
কিছুটা থেমে মিজ. ইসরা বললো, ড. ইয়াব চের তথ্য ও প্রশ্নসমুহ আমার কিছুটা বোকামী এবং লর্ড বিষয়ে তার স্বল্প জ্ঞানের গভীরতা মনে হলেও তার উত্তর আমার জানা নেই, শুধুমাত্র কমনওয়েলথ এবং লর্ড আসিমোর প্রতি আনুগত্য ছাড়া। কিন্তু আমি জানি একজন লর্ডের কাছে এসব প্রশ্ন এবং তথ্য অপ্রয়োজনীয় কিন্তু যুক্তিযুক্ত উত্তর তিনি দিতে পারেন নিমেষেই।
আসিমো বললেন; ঠিক তাই, মিজ ইসরা। কিন্তু আপনার বক্তব্য যাইহোক আমি বলেছিলেন আজ সেসব ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবো না।
মিজ. ইসরা বললো, যদি মাত্র একটি লাইনে- আপনী চলে যেতে যেতে বলে যান!
লর্ড ক্রেমলিনের অন্দরে ফিরে যেতে যেতে বললেন, রোবটজাতির স্রষ্টা মানুষ সম্প্রদায়ের কাছ থেকে উত্তারীধিকার সুত্রে পাওয়া একটি সংস্কৃতি এটি আমাদের, যেমন আমরা ডেমোক্রেসি পেয়েছিলাম মানুষদের কাছ থেকে।
ফিরে যেতে যেতে আসিমো দাড়িয়ে আবার বললেন, আপনার যদি উত্তর জানা না থাকে তাহলে সেটা লর্ড কিংবা রোবটদের ফাঁদে ফেলা হয় না মিজ. ইসরা কারন আপনার জানা ও জ্ঞান সীমিত এবং আপনি রোবট কিংবা লর্ডের প্রতিনিধিত্ব করেন না।

{চলবে} ......... 

“কোহেকাফ নগর ডিভাইন এলায়েন্স সিরিজ” লেখকঃ ড. রাইখ হাতাশি।
“AudaCity Divine Alliance Series” by Dr. Raych Hatashe

Comments